পুলিশের সহায়তায় নিজের বাল্যবিবাহ রোধ করলো স্কুলছাত্রী

জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ কল করে পুলিশের সহায়তায় নিজের বাল্যবিবাহ রোধ করেছে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার ভোগডাবুড়ী ইউনিয়নের হাবিবা খাতুন (১৫) নামের নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী।

বৃহস্পতিবার (২২শে সেপ্টেম্বর) উপজেলার ভোগডাবুড়ী ইউনিয়নের গোসাইগঞ্জের শিমুলতলী এলাকায় জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ কল করে চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মো. হামিদুল ইসলাম ও সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় ঠিক হওয়া বিয়ে ভেঙ্গে দেওয়া হয়।

ভুক্তভোগী হাবিবা খাতুন (১৫) ভোগডাবুড়ী ইউনিয়নের গোসাইগঞ্জ গ্রামের শিমুলতলী এলাকার মো. মজিবুল হকের কন্যা। নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ের বিয়ে বাবা-মা ঠিক করলেও সে লেখাপড়া করতে চায় বলে বিয়েতে রাজি না থাকায় অবশেষে পুলিশের সঠিক কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে বিয়েটি ভেঙ্গে দেন তারা।

এবিষয়ে চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মো. হামিদুল ইসলাম জানান, নবম শ্রেণির স্কুলছাত্রী হাবিবা লেখাপড়া করে বড় হতে চায়। কিন্তু তার বাবা-মা বিয়ে ঠিক করায় সে সহায়তা চায়।

আমি ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করে তার পরামর্শক্রমে কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ভুক্তভোগীর বাবা-মাকে বুঝাতে সক্ষম হওয়ার সাথে সাথে ঘটকের সাথে কথা বলে বিবাহ ভেঙ্গে দেন তারা এবং মেয়ের লেখাপড়া চালিয়ে নেওয়ার অঙ্গীকার করেন।

পত্রিকাএকাত্তর / আজমির রহমান

সম্পর্কিত নিউজ

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ নিউজ