পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ভেঙে দায়িত্ব হারালেন শিক্ষা কর্মকর্তা

এসএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ভেঙে ফেলায় দায়িত্ব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এক শিক্ষা কর্মকর্তাকে।
১৯ সেপ্টেম্বর সোমবার ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোবাইল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। ২০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষাকেন্দ্র পরিদর্শন করে ঘটনাটি দ্রুত নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন ঠাকুরগাঁও জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।
পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র সচিব ও প্রধান শিক্ষক মফিজুল হক জানান, পরীক্ষা চলাকালে তার কেন্দ্রে দুই কক্ষ পরিদর্শকসহ পরীক্ষার্থীদের ১৮টি মোবাইল জব্দ করে ভেঙে ফেলার ঘটনায় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পীরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুল্লাহকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার তার কেন্দ্রে ট্যাগ অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন পীরগঞ্জ উপজেলা সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাসিমুল বারী।
কেন্দ্র সচিব আরো জানান, পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন ভাঙার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকরা। তারা ২০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে পরীক্ষা শুরুর আগে কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে অনীহা প্রকাশ করেন।
পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের আশ্বাসে দায়িত্ব পালন করেন শিক্ষকরা। পীরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুল্লাহ বলেন, ‘রাগের মাথায় ফোনগুলি ভেঙে ফেলা হয়। বিষয়টি নিয়ে বসার কথা হয়েছে।’
ঠাকুরগাঁও জেলা শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দীন আল আজাদ বলেন, ‘ঘটনা শুনে কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। মোবাইল ফোন ভাঙার কাজটি ঠিক হয়নি। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ভুল করেছেন। এ বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
পত্রিকাএকাত্তর / আনোয়ার হোসেন

সম্পর্কিত নিউজ

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ নিউজ