কাঁঠাল পাতা বিক্রি করে ভাগ্য বদলানোর চেষ্টা

কাঁঠাল পাতা বিক্রি করে অনেকেই ভাগ্য বদলের চেষ্টা করছে, আবার অনেকের সেই কাঁঠাল পাতা বিক্রির টাকায় চলছে জীবন সংসার। সৈয়দপুর রেলস্টেশন ১ম রেল ঘুন্টি এলাকায় কাঁঠাল পাতা নিয়ে বসেন প্রায় ষাটোর্র্ধ্ব রেনু।

বাড়ী নীলফামারী সীমান্ত এলাকা চিলাহাটিতে। স্বাধীনতার পর থেকে সৈয়দপুর শহরে কাঁঠালের পাতা বিক্রি করে চলেছেন। প্রতিদিন তার পাতা বিক্রি হয় প্রায় ৪শ’ থেকে ৫শ’ টাকা। একই জায়গায় কাঁঠালের পাতা নিয়ে বসেন রাবেয়া (৪৫)।

প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে দিনাজপুরের পাকেরহাটের জমিদারপাড়ায় তার বাড়ি। দীর্ঘ পথ ভ্যান ও রিকশায় পাতা নিয়ে এসে এই শহরে বিক্রি করেন। তিনি জানান, এলাকায় প্রতিটি কাঁঠাল গাছ পাতার জন্য ৩শ’ থেকে ৯শ’ টাকায় কিনে থাকেন।

পাতা কাটার জন্য মজুরী দিতে হয় ৩শ’ টাকা। পাতা আনার পর আঁটি করে ৫ ও ১০ টাকায় বিক্রি করে তার লাভ হয় ৩শ’ থেকে ৫শ’ টাকা। এই আয়ে তার অভাবের সংসার ভালোই চলছে বলে জানান। তিনি আরো জানান- কোরবানি বা উৎসবের সময় বাড়িতে বেশি খাসি-ছাগল আসলে বিক্রি বাট্টাও বাড়ে আর এসব পাতা দিনাজপুরের পার্বতীপুর, খানসামা, রংপুরের তারাগঞ্জ, বদরগঞ্জ, নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ, সৈয়দপুর, ডোমার, চিলাহাটিসহ বিভিন্ন গ্রাম এলাকা থেকে কাঁঠালের পাতা সংগ্রহ করা হয়।

সৈয়দপুরের রেলগুণটিগুলোতে এসব পাতা বিক্রি চোখে পড়ে। দোকানদাররা দোকান বন্ধের পর এক বা দুই আঁটি কাঁঠালের পাতা নিয়ে বাড়ি ফিরেন। কাঁঠাল পাতার চাহিদার কারণে পাতার ব্যবসা জমে উঠেছে সৈয়দপুরে।

পত্রিকাএকাত্তর / শাহাজাহান বিপ্লবী

সম্পর্কিত নিউজ

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ নিউজ