আমাদেরকে-ই আমাদের কথা বলতে হবে!

নিজস্ব প্রতিনিধি

নিজস্ব প্রতিনিধি

১২ জানুয়ারী, ২০২২, ৬ months আগে

আমাদেরকে-ই আমাদের কথা বলতে হবে!
ফাইল ছবি | পত্রিকা একাত্তর

২০২২ এ এসে আমাদের আর চুপ করে থাকার কোন কারন নেই! eSports এখন একটা সম্ভাবনাময় বিপ্লব এর নাম সমগ্র বিশ্বে। উন্নত বিশ্বে যখন eSports এর রয়েছে বিশেষ কার্যক্রম সেখানে আমরা অনেকে পড়ে রয়েছি বদ্ধমুল ধারনায়। এ থেকে বেরিয়ে আসার সময় হয়েছে। আসক্তি; সেটা যে কোন কিছুতে-ই হতে পারে তবে সচেতনতা ও সুষ্ঠ নীতিমালার মাধ্যেমে eSports এর অমিত সম্ভাবনার শিল্পটাকে আমরা বিকশিত করতে পারি। ২০২২ এর Asian Games এ রয়েছ eSports; Medal Event হিসাবে! যার মানে আপনি ও eSports ইভেন্টে অংশগ্রহন করে কাঙ্খিত স্বর্ণ পদক পেতে পারেন। আমি বেশি বড় কেউ না কিন্তু নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি বড় বড় দেশে ই- স্পোর্টস কে যেরকম গুরুত্ব দেওয়া হই আমাদের দেশে তার ১০% দিলেও হয়তো আমরাও ব্রাজিল, চীন, কোরিয়া, জাপান রাশিয়া এর মত গেম দিয়ে পরিচিতি পেতাম। আমাদের দেশেও অনেক ই- স্পোর্টস প্লেয়ার এবং টিম রয়েছে কিন্তু অভাব শুধু ইভেন্ট আর প্লাটফরম এর। আপনারা অনেকেই হয়তো জানেন যে আমি কয়েক দিন আগে একটা ই স্পোর্টস ইভেন্ট এ গেছিলাম ইনভাইটেড ইউটিউবার হিসাবে সেখানে আমাকে বক্তব্য করতে বললে সেখানেও আমি ২০২২ সালের এশিয়ান গেমস এর কথা বলেছি। ২০২২ সালের এশিয়ান গেমস এ রয়েছে ই স্পোর্টস ইভেন্ট। বাংলাদেশে বর্তমানে দেশের সবচেয়ে বড় দুইটা ই স্পোর্টস গেম পাবজি ও ফ্রি ফায়ার এখন আমাদের দেশে ব্যান কিন্তু তার পরেও এরিনা অফ ভ্যালোর নামের গেমটি আমাদের দেশের ই স্পোর্টস প্লেয়ার ও টিম গুলোকে অনেক বড় একটা সুজোগ করে দিয়েছে। আশা করি আমাদের দেশের মা ও বাবারা এটা বুঝতে পারবেন। বর্তমান ই স্পোর্টস কমিউনিটি ১০ মিলিয়ন ডলার এর উপর রেগুলার ইনকাম করে। যেখানে ই স্পোর্টস এর রেগুলার অডিয়েন্স নেটফ্লিক্স, এইচ পি এন এর থেকেও বেশি সেখানে আর কিছুই বলার থাকে না। ২০২২ সাল নামেই আমরা ডিজিটাল কিন্তু এখন ই স্পোর্টস এর সাথে নিজেদের মানিয়ে নিতে পারলাম না। আসা করি আমার কথা গুলা বাবা মায়েরা বুঝবেন। --ফাতিন আল সাদাব রাতুল, ইউটিউবার এবং ই স্পোর্টস বিশেষজ্ঞ৷

ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন

youtube
Patrika71.com
news