বৌদ্ধ পূর্ণিমা অনুষ্ঠানে নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি

১৩ মে, ২০২২, ৩ দিন আগে

বৌদ্ধ পূর্ণিমা অনুষ্ঠানে নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি
চট্টগ্রাম- ১৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, শান্তির বার্তা ছড়াতে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে। ধর্ম মানুষের কল্যানের জন্য, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন সমূহ স্থাপিত হয় শান্তির বার্তা ছড়াতে।
ধর্ম চর্চার মাধ্যমে মানুষ বিশৃংখল পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে পারে। চন্দনাইশে ২৩টি বৌদ্ধ পল্লী মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছাকাছি থেকে বসবাস করছে। চন্দনাইশ উপজেলা একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মডেল উপজেলা হিসেবে পরিচিত। এখানে যে যার রীতিনীতি অনুযায়ী ধর্মীয় অনুশাসন মেনে সহবস্থানে থেকে নিরাপত্তার সাথে পালন করে যাচ্ছে। চন্দনাইশে কোন সময় সাম্প্রদায়িক হাঙ্গামা হয়নি এবং আগামীতেও এই ধরনের সম্প্রীতি বজায় থাকবে।
১৩ মে শুক্রবার বিকেলে শুভ বৌদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে চন্দনাইশ সম্মিলিত বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে,চন্দনাইশ বৌদ্ধ পরিষদের সহযোগিতায় চন্দনাইশ সদরস্থ কাসেম মাহাবুব উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক আলোচনা সভা সংগঠনের সভাপতি কর আইনজীবী জয়শান্ত বিকাশ বড়ুয়া সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি ও উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে- উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা নাছরীন আক্তার, পৌর মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা, থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু আহমদ জুনু, বৌদ্ধ নেতা রাখাল চন্দ্র বড়ুয়া, আ’লীগ নেতা এম কাইসার উদ্দিন চৌধুরী।
নিবু বড়ুয়া ও মৃদুল বড়ুয়ার সঞ্চালনায় আর্শিবাদক হিসেবে বক্তব্য রাখেন শীলরক্ষিত মহাস্থবির, প্রজ্ঞানন্দ মহাস্থবির, সোমানন্দ মহাস্থবির,অতুলানন্দ মহাস্থবির, দেবানন্দ মহাস্থবির, এল অনুরুদ্ধ মহাস্থবির, ভিক্ষু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমন প্রিয় থের, চন্দনাইশ প্রেসক্লাবের সভাপতি এড.মো.দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব টিপু কুমার বড়ুয়া,আলোচনায় অংশ নেন মহিলা আ’লীগ নেত্রী সঞ্চিতা বড়ুয়া,সুব্রত বড়ুয়া, বিধান বড়ুয়া, বন্ধন বড়ুয়া, বিবেক বড়ুয়া প্রমুখ।
যুবলীগ নেতা এম নাসির উদ্দিন সহ এ সভায় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা যথাক্রমে জাহেদুর রহমান নয়ন,আমির হোসেন,সিরাজুল কাফি চৌধুরীসহ আ’লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। পরে কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে র‍্যালীর উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি। র‍্যালীটি চন্দনাইশ সদর হয়ে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে চন্দনাইশ সদরে এসে শেষ হয়। এতে চন্দনাইশের ২৩ বৌদ্ধ পল্লীর ধর্মীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
পত্রিকা একাত্তর / ইসমাইল ইমন