patrika71
ঢাকামঙ্গলবার - ৮ নভেম্বর ২০২২
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাজাশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগে মাসুদ

জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও
নভেম্বর ৮, ২০২২ ৬:২০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাজাশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হল শাখা ছাত্রলীগের কমিটিতে বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি উপ-সম্পাদক পদে মনোনীত হয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সন্তান মাসুদ রানা। গত ৬ তারিখ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সুপারিশে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একটি পুর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেন।

সেই কমিটিকে তাকে বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি উপ-সম্পাদক পদে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। বিষয়টি মাসুদ রানা সোমবার রাতে মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন। সদ্য দায়িত্ব পাওয়া রাবি ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ রানার বাড়ী বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের জিয়াখোর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে।

রাবিতে মাস্টার্স পড়ুয়া ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ রানা ঠাকুরগাঁও সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৩ সাল এসএসসি এবং ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজ থেকে ২০১৫ সালে এইচএসি পাশ করেন। এরপরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স শেষ করে মাস্টার্সে পড়াশোনা করছেন। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সন্তান হিসেবে রাবি ছাত্রলীগ জিয়া হল শাখার কমিটিতে স্থান পাওয়ায় মাসুদকে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

সেই সাথে দলীয় কাজে সর্বদা পাশে পাবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন। অনুভুতি প্রকাশ করে ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমার রাজনৈতিক জীবনের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নের বাস্তবায়ন হয়েছে।ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা আমার রাজনৈতিক অভিভাবকদের,যারা আমাকে এই পদে মনোনীত করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাথে কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন।

আমাকে দায়িত্ব দেওয়ায় আমার প্রতি যাদের আশা-আকাঙ্ক্ষা রয়েছে,আমাকে যারা ভালোবাসে তাদের পাশে যেন সব সময় থাকতে পারি। “বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে আমার প্রতি অর্পিত দায়িত্ব সফলভাবে পালন করার মাধ্যমে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।

ছাত্রলীগ আমার আবেগের জায়গা।সেই হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষ করে আমার রাজনৈতিক জীবনের ধারাবাহিকতায় স্থানীয় ছাত্রলীগের সাথে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করতে পারি।

পত্রিকা একাত্তর / আকাশ