patrika71
ঢাকামঙ্গলবার - ১৭ জানুয়ারি ২০২৩
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

১৭ বছর পরে জেলা যুবলীগের সম্মেলন

জেলা প্রতিনিধি, বাগেরহাট
জানুয়ারি ১৭, ২০২৩ ৯:৩৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দীর্ঘ ১৭ বছর পরে বাগেরহাট জেলা যুবলীগের সম্মেলন হতে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগি এই সংগঠন পাবে পূর্নাঙ্গ কমিটি। দীর্ঘ দিন পরে সম্মেলন হওয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসাহ উদ্দিপনা বিরাজ করছে। নতুন নেতৃত্বের আশায় দিন গুনছেন কর্মীরা। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৫ জানুয়ারি আড়ম্বরপূর্ন অনুষ্ঠানের মধ্য এবারের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এটাই বাগেরহাটে সর্বকালের সেরা সম্মেলন হবে বলে জানিয়েছেন জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।

জেলা যুবলীগ সূত্রে জানযায়, সর্বশেষ ২০০৬ সালে বাগেরহাট জেলা যুবলীগের সম্মেলন হয়েছিল। যুবলীগ নেতা খান মুজিবুর রহমানকে সভাপতি ও শামীম হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি করা হয়। অজানা কারণে ২০১২ সালের ডিসেম্বর মাসে কমিটি ভেঙ্গে দেওয়া হয়। এরও চার বছর পরে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সরদার নাসির উদ্দিনকে আহবায়ক করে ২৪ সদস্যের আহবায়ক কমিটি করা হয়। আহবায়ক কমিটি গঠনের প্রায় অর্ধযুগ পরে এই সম্মেলন হতে যাচ্ছে। ২৫ তারিখের এই সম্মেলন হবে বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে। সম্মেলন বাস্তবায়ন করতে মিডিয়া উপকমিটি, মঞ্চ ও সাজ সজ্জা কমিটি, প্রচার কমিটি, শৃঙ্খলা কমিটিসহ মোট ১৪টি কমিটি করা হয়েছে। কমিটিগুলো স্ব-স্ব দায়িত্ব পালন করছেন। ইতোমধ্যে সম্মেলন স্থলের সাজ-সজ্জার কাজও শুরু হয়েছে।

সম্মেলনের আগ মুহুর্তে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌরসভা ও উপজেলা পর্যায়ে বর্ধিত সভা চলছে। এবারের সম্মেলনে জেলা আহবায়ক কমিটির ২৪ জন এবং উপজেলা পদ মর্যাদার ১০টি সাংগঠনিক ইউনিটের ২৫০ জন কাউন্সিলর অংশগ্রহন করবেন। কাউন্সিলর ছাড়াও লক্ষাধিক নেতাকর্মীর সমাগম হওয়ার কথা রয়েছে এই সম্মেলনে। এবার ১০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি হবে বাগেরহাটে। ইতোমধ্যে পদপ্রত্যাশীরা জীবন বৃত্তান্ত পাঠানো শুরু করেছে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে। দীর্ঘদিন পরে সম্মেলন হওয়ায় আরও বেশি উজ্জিবিত হয়ে উঠেছে তৃনমূলের নেতাকর্মীরা। পোস্টার ও প্যানায় নিজের ছবি দিয়ে জেলা সম্মেলন সফল করার জন্য শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন কর্মীরা।

বাগেরহাটের রাজনীতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই সম্মেলনে অতিথি হিসেবে, বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন, বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়, বাগেরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য বেগম হাবিবুন নাহার, বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শেখ ফজলে শামস পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ কামরুজ্জামান টুকু, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. ভুইয়া হেমায়েত উদ্দিনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ব্যক্তিগণ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

বাগেরহাট সদর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মনোয়ারুল কমির মিন্টু বলেন, যুবলীগে যোগদানের পর এবারই প্রথম সম্মেলনের আয়োজন দেখছি। আশাকরি অনেক বড় সম্মেলন হবে। সে ভাবেই জেলা কমিটি আয়োজন করছে সবকিছু। আমরাও বিভিন্ন কাজে সহযোগিতা করছি।

মোঃ মনিরুল ইসলাম নামের আরেক যুবলীগকর্মী বলেন, নিয়মিত কমিটি গঠন, পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন ও সম্মেলন হলে দলীয় নেতাকর্মীরা উজ্জিবিত হয়। দীর্ঘদিন পরের এই সম্মেলন ঘীরে আমাদের সকল নেতাকর্মীরা জেগে উঠেছে। এত বড় আয়োজনে অনেক কিছু শিখতেও পারছি আমরা।

হাসিবুল ইসলাম নামের আরেক ব্যক্তি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আহবায়ক কমিটিতে চলছিল জেলা যুবলীগ। এবার একটি পূর্নাঙ্গ কমিটি পাব। এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে সঠিক নেতৃত্ব আসবে বাগেরহাট জেলা যুবলীগে এমন দাবি এই কর্মীর।

সম্মেলন প্রস্তুত সংক্রান্ত মিডিয়া উপ-কমিটির আহবায়ক লিটন সরকার বলেন, সম্মেলন উপলক্ষে পদপ্রত্যাশীরা কেন্দ্র্রীয় কমিটির কাছে তাদের জীবন বৃত্তান্ত পাঠানো শুরু করেছেন। পাশাপাশি নেতারা কর্মীদের সাথে এবং কর্মীরা নেতাদের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি শুরু করেছে। সব মিলিয়ে সম্মেলন ঘীরে নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসবের আমেজে বিরাজ করছে।

বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহবায়ক সরদার নাসির উদ্দিন বলেন, এবারের সম্মেলন ঘীরে নেতাকর্মীরা উজ্জিবিত হয়েছে। এই সম্মেলনকে সফল করতে আমরা সব ধরণের চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে ১৪টি উপ-কমিটি করা হয়েছে। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ে বর্ধিত সভা করা হচ্ছে। সম্মেলনে নেতাকর্মীরা সতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহন করবেন। আশাকরি এই সম্মেলনে লক্ষাধিক নেতাকর্মীর সমাগম হবে বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে।

পত্রিকা একাত্তর/ আবু তালেব