patrika71 Logo
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১১ নভেম্বর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রজনন স্বাস্থ্য বা যৌনশিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
নভেম্বর ১১, ২০২১ ১০:০০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ad

বাংলাদেশে প্রজনন স্বাস্থ্য সম্পর্কে স্কুলের পাঠ্যপুস্তকে বিচ্ছিন্ন ভাবে কিছু ধারণা দেয়া আছে। তবে ক্লাসে শিক্ষকেরা অনেকেই বিষয়টি পড়াতে অস্বস্তি বোধ করেন। এমনকি আমি দেখেছি কয়েকটি স্কুলে এই বয়োসন্ধিকাল নিয়ে যে চ্যাপ্টারগুলো রয়েছে সেগুলো স্টেপল করে আটকে দেয়া অর্থাৎ সচেতনভাবে এড়িয়ে যাওয়া হচ্ছে। এটা খুবই দুঃখজনক বিষয়। একজন ছেলে অথবা মেয়ের জন্য এই সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বয়ঃসন্ধি একটি সুনির্দিষ্ট প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে একটি শিশুর শরীর একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের শরীরে রূপান্তরিত হয় এবং প্রজননের সক্ষমতা লাভ করে।

বয়ঃসন্ধি কাল খুবই সংক্ষিপ্ত সময়। এর মেয়াদ মাত্র এক থেকে তিন বছর। ৫ম থেকে ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়াদের জীবনে এ কালটা অতিক্রম করে। এ সময় ছেলে-মেয়েদের যৌনতার বিকাশ ঘটে। মেয়েদের পরিবর্তন শুরু হয় ছেলেদের চেয়ে এক বছর আগে। এ সময় ব্যক্তি-জীবনটা থাকে বড়ই আবেগপ্রবণ। কারণ শরীর খুব দ্রুত বদলাতে থাকে। তাল সামলানো কঠিন হয় বা প্রায়ই পারা যায় না। হরমোন বৃদ্ধির কারণে মেয়েদের শরীর থেকে মেয়েলী গন্ধ এবং ছেলেদের শরীর থেকে পুরুষালী গন্ধ প্রকটভাবে ছড়াতে থাকে। উভয়ের নরম চামড়া ভেদ করে, বিশেষ করে মুখে ফুসকুড়ি বা ব্রণ উঠতে থাকে। পুরো বয়ঃসন্ধি কালেই এ পরিবর্তন ঘটতে থাকে।

আরো পড়ুনঃ  কালো জাম মানব দেহে রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে

এ সময় ছেলে-মেয়েদের সাধারণ পরিবর্তনগুলো নিম্নরূপঃ ছেলেদের ক্ষেত্রে, দেহের উচ্চতা বাড়ে। মাংসপেশী দৃঢ় হতে থাকে। লিঙ্গ বড় ও মোটা হয়। অণ্ডকোষ ঝুলে যায় ও বড় হয়। মুখে গোঁফ-দাড়ি, বগলে, বুকে ও তলপেটে লোম এবং লিঙ্গের গোড়ায় যৌনকেশ গজায়। গলার স্বর অল্প সময়ের জন্য ভেঙে যায় ও ভারী হয়। মুখে তেল বাড়ে ও ব্রণ হয়।দেহে শুক্রকোষ তৈরি হয়। যৌন কামনা বাড়ে ও বীর্যপাত বা ‘স্বপ্নদোষ’ শুরু হয়। সন্তান জন্মদানে সক্ষম হয়। ঠিক মেয়েদের ক্ষত্রেও এ বয়সে মেয়েদের উচ্চতা বাড়ে। শরীরের বিভিন্ন অংশ স্ফীত হয়। বাহুমূল ও যৌনাঙ্গে লোম গজায়। মাসিক শুরু হয়। এই বয়সে প্রায় সকলের মনেই উঁকি মারে নানা প্রশ্ন। কিন্তু সেই প্রশ্নের উত্তর কে দেবে? অনেক সময়ে বাবা-মা ‘বন্ধু’ হিসেবে সন্তানদের সঙ্গে মেশার চেষ্টা করলেও পারেন না। আবার ছেলেমেয়েদের মনে উঁকি মারা কৌতূহলকে অনেকেই এড়িয়ে যেতে চান। কিন্তু, প্রশ্নের উত্তর না-মেলায় অনেক ক্ষেত্রে সমস্যা বাড়ে। পাশাপাশি ছাত্রছাত্রীরাও বাড়ির বড়দের সঙ্গে নিজেদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে কুণ্ঠা বোধ করে। মনের কথা মনেই চেপে রাখতে রাখতে অনেকে হতাশায় ভুগতে শুরু করে। সেই হতাশা থেকে জন্ম নেয় ক্রোধ। অনেকে বেছে নেয় চরম পথ। তাই এই বয়সে সেক্স এডুকেশন বা যৌনশিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা বেশ জরুরি যেখানে তার এই শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তনের দিকগুলোর বিষয়ে ব্যাখ্যা থাকবে। এতে তারা ঘাবড়ে যাবে না।

আরো পড়ুনঃ  স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি সম্পর্কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ইমরান হোসাইন,

শিক্ষার্থী: গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।