patrika71 Logo
ঢাকাসোমবার , ২৩ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মাশরুমের উপকারিতা নিয়ে যা বললেন চিকিৎসক

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
আগস্ট ২৩, ২০২১ ৩:১৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

আমরা সকলেই জানি যে মানবদেহের গঠন, দেহবৃদ্ধি, ক্ষয়পূরন, রক্ষনাবেক্ষণ, কাজের ক্ষমতা অর্জন, শারীরিক সুস্থতা ইত্যাদির জন্য খাদ্যের প্রয়োজন পড়ে । দেহের কাজকর্ম সুষ্ঠ রুপে পরিচালিত করে খাদ্য, দেহকে সুস্থ ও কাজের উপযোগী রাখার জন্য যে সকল উপাদান প্রয়োজন, সে সকল উপাদান বিশিষ্ট বস্তুুকে খাদ্য বলি আমরা । তাছাড়া খাদ্য আমাদের শক্তি যোগায়, দেহে ক্ষয়পূরন করে ও দেহ বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। আমরা বেঁচে থাকার জন্য খাবার খাই । আর এসকল ভিন্নতর খাবারের মধ্যে মাশরুম বর্তমানে অন্যতম খাদ্য হিসেবে দেশ সহ বিদেশে বহুল পরিচিতো হয়ে উঠেছে।

মাশরুমের উপকারিতা কি ? এবং কেন আমাদের প্রতিদিন কম করে হলেও মাশরুম খাওয়া উচিৎ এ বিষয়ে বিশেষ আলোচনায় মোরেলগঞ্জ ডিপ্লোমা হোমিওপ্যাথি মেডিসিন এন্ড সার্জারির চিকিৎসক ডাঃ সুমাইয়া শারমিন (DHMS) বলেছেন, মাশরুমকে আমরা সবাই চিনি ছত্রাক জাতীয় উদ্ভিদ হিসেবে। একই সঙ্গে এটি অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর খাবারও বটে। এতে আছে প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল, অ্যামাইনো এসিড, অ্যান্টিবায়োটিক ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। তিনি আরো বলেন মাশরুম দেহের জন্য অনেক সাস্থ্যকর একটি খাবার। তাছাড়া , মাশরুমে কোলেস্টরেল কমানোর অন্যতম উপাদান ইরিটাডেনিন, লোভাষ্টটিন, এনটাডেনিন, কিটিন এবং ভিটামিন বি,সি ও ডি থাকায় নিয়মিত মাশরুম খেলে উচ্চ রক্তচাপ (হাই ব্লাড প্রেসার) ও হূদরোগ নিরাময় হয়।

এমনকি মাশরুমের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস ও ভিটামিন-ডি আছে যা শিশুদের দাঁত ও হাড় গঠনে এই উপাদানগুলো অত্যন্ত কার্যকরী ভুমিকা রাখে। ক্যান্সার ও টিউমার প্রতিরোধেও মাশরুম বেশ উপকারী। হেপাটাইটিস বি ও জন্ডিস প্রতিরোধ করে। এছাড়াও মারাত্বক রোগ অ্যানিমিয়া বা রক্তস্বল্পতা থেকে রেহাই পাওয়া যায় এই মাশরুম খাবার খাওয়ার ফলে । খাদ্য হজম করতে সাহায্য করতে মাশরুম অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করে। তাছাড়া ,আমাশয় নিরাময় করতেও মাশরুমের বেশ উপকারিতা রয়েছে বলে জানান তিনি । মাশরুমে নিউক্লিক এসিড ও এন্টি এলার্জেন থাকায় এবং সোডিয়ামের পরিমাণ কম থাকায় কিডনি রোগ ও এলার্জি রোগের প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে এই মাশরুম । মাশরুমে স্ফিংগলিপিড এবং ভিটামিন-১২ বেশি থাকায় স্নায়ুতন্ত্র ও স্পাইনাল কর্ড সুস্থ্য রাখে। তাই মাশরুম খেলে হাইপার টেনশন দূর হয় এবং মেরুদণ্ড দৃঢ় থাকে। মাশরুমের খনিজ লবণ দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়ক ভুমিকা পালন করে বলে জানান তিনি ।

এদিকে , দেশে মাশরুমের চাষ দিন দিন বেড়েই চলেছে মাশরুম যেহেতু একটি সুস্বাদু খাবার তাই সারা বিশ্বে এর চাহিদা ব্যাপক। বর্তমানে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে মাশরুমের চাষ হচ্ছে। দেশের অর্থনীতিতে মাশরুমের চাষ অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ন ভূমিকা পালন করছে। তাছাড়া ভবিশ্যতে এই মাশরুম চাষের বৃদ্ধি ঘটানোর জন্য আমাদের জনসংখ্যাকে জনসম্পদে রুপান্তর করতে হবে। তবে একটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নায়নের অন্যতম শর্ত হলো দক্ষ জনশক্তি তৌরি করা । দক্ষ জনশক্তির মাধ্যমেই মূলধন ও প্রাকৃতিক সম্পদের সুষ্ঠু ব্যাবহার করা সম্ভব হয়ে ওঠে ।আমাদের মূলধন কম থাকতে পারে ।কিন্তু আমাদের প্রচুর প্রাকৃতিক ও মানব সম্পদ রয়েছে।

আমরা কীভাবে আমাদের এই বৃহৎ সম্পদকে কাজে লাগাতে পারি সে বিষয়ে সরকারকে একটু ভাবতে হবে তবে আমি মনে করি মূলত ৩ টি ধাপে এসকল কার্যক্রম পরিচালনা করে সাফল্য আনা সম্ভব হতে পারে, প্রথমত, তুলনামুলক দক্ষ জনসম্পদ রপ্তানির মাধ্যমে আমাদের প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয় করার সুযোগ আছে। বিদেশে কর্মরত আছে আমাদের দেশের নানা পেশার মানুষ। তাদের উপার্জিত অর্থ পরিবারের আর্থিক চাহিদা পুরন করে দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করছে দিন দিন । দ্বিতীয়ত, আমাদের শিক্ষার মান উন্নত করা, যাতে আমাদের জনগন দক্ষ মানব সম্পদে পরিনত হতে পারেন। সরকারি সহায়তাকারী বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষন কর্মসূচির ব্যাবস্থা করে এই অদক্ষ জনবলকে দক্ষ জননশক্তিতে রুপান্তর করা হলে দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাবে সমৃদ্ধির দিকে । তৃতীয়ত, কৃষি প্রশিক্ষন কেন্দ্রে বিভিন্ন কাজের পাশাপাশি মাশরুম চাষের প্রশিক্ষন দেওয়া যাতে তারা নতুন এ শিল্পের বিকাশ ঘটাতে সক্ষম হয়,দেশের অর্থনীতিতে অন্যান্যদের মতো গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করতে পারে।

মোঃ নাজমুল: মেরেলগঞ্জ, বাগেরহাট প্রতিনিধি।