patrika71 Logo
ঢাকাশুক্রবার , ১৩ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সুন্দরের লীলাভূমি কুয়াকাটার লকডাউনে আলাদা রূপ পেয়েছে সাগরকন্যা

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
আগস্ট ১৩, ২০২১ ৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ad

সুর্যোদয় আর সূর্যাস্তের বেলাভূমি সাগরকন্যা কুয়াকাটার সমুদ্র সৈকত। সাগরের গভীরতার উপভোগের পাশাপাশি প্রকৃতির সাজ পেতে প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক ছুটে আসত এই সাগরকন্যা কুয়াকাটায়। কিন্তু এবারের চিত্র একেবারে ভিন্ন, করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন থাকায় পর্যটকশূন্য কুয়াকাটা দীর্ঘ লকডাউন থাকার কারণে কোন পর্যটক না আসায় প্রকৃতির অপরূপ সাজ নিয়ে হাজির হয়েছে, এ যেন রূপ যৌবনে ভরা নতুন এক সাগরকন্যা কুয়াকাটা, লকডাউন উঠে গেলে আপনার আনন্দ ভ্রমণটা হোক কুয়াকাটায়, সকালবেলা সূর্যটা আপনাকে আনন্দ হাসির দৃশ্য দেখাবে।

১১ আগস্ট সীমিত আকারে লকডাউন তুলে নিল বন্ধ রয়েছে পর্যটন এলাকা,নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সাগরকন্যা কুয়াকাটা দেশ-বিদেশ থেকে পর্যটকদের আনাগোনায়।

সুন্দরের লীলাভূমি সাগর কন্যার আলাদা রূপ, নাই কোনো হাঁকডাক নেই কোন পর্যটকের নতুন মানুষের ঝাক, সমুদ্র সৈকতের ঢেউরের অপরূপ দৃশ্য সুন্দর সেজেছে কুলের প্রান্ত রূপ, অনেকদিন যাবত পর্যটকশূন্য থাকায় যেন লকডাউন রয়েছে কমলা রঙের সূর্য, মনটা খারাপ করে চলে যাচ্ছে জলো দেশে ,এ যেন চোখ ধাঁধানো কুয়াকাটা । লকডাউনে কমেছে কোলাহল, আর দূষণ, কুয়াকাটা সৈকতে ফিরেছে রূপলাবণ্য পরিচ্ছন্ন, সৈকতে কোলঘেঁষে সুরক্ষিত বনাঞ্চল গঙ্গামতিতে যেন আগুনঝরা কৃষ্ণচূড়া সেখানে জানো জাদুর কাঠির মোহন ছোঁয়ায় বদলে গেছে প্রকৃতি।

কুয়াকাটা থেকে মিস্ত্রীপাড়া দেখতে যেমন জারুলের সাথে কচুরি ফানার ফুলের গন্ধ, কুয়াকাটা থেকে তিন নদীর মোহনা লেবুর বন কুয়াকাটার কুয়া সহ অন্যান্য দর্শনীয় স্থান দেখতেই ভেসে আসে ভরদুপুরে বালুকণার সাথে চোখ ধাঁধানো লাল কাকড়ার কোলাহল এ যেন সৃষ্টিকর্তার এক অপরূপ দৃশ্য।

বিকেল গড়াতেই কমলা রঙের সূর্য নামে সমুদ্র স্নানে, সেখান থেকে ফিরে আসতেই চাঁদনী রাতের আবহাওয়াটা প্রকৃতির রূপ নেয় চাঁদনী রাতের সাথে বিশাল সমুদ্রের ভালোবাসার কথা, এজেনো স্বপ্ন দেখা কুয়াকাটা। কিন্তু এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে নেই সেই আগের মত নতুন জোড়ায় জোড়ায় পাখিদের দেখা।

স্থানীয় পর্যটন ব্যবসায়ী ও সাংবাদিক হোসাইন আমির বলেন, কুয়াকাটা যে আসলেই অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি সেটা এখন না দেখলে বোঝা যাবে না জেলেদের মাছ ধরাটা এখন আরো সৌন্দর্যের দৃশ্যের লেখক, সমুদ্রের পাড়ে বসে পড়তেই কবি মনোভাবটা চলে আসে লকডাউন সম্পূর্ণ উঠে গেলে যেন এই দৃশ্য ধরে রাখতে পারি।

কুয়াকাটা হোটেল সমুদ্র বিলাস,এর মালিক বলেন,কুয়াকাটার সকল সৌন্দর্যের স্থান গুলোর সাথে,কুয়াকাটায় যুক্ত হয়েছে গভীর সমুদ্র উপভোগ করার নতুন এক মাত্রা, কুয়াকাটার সৌন্দর্যের স্পটগুলোর পাশাপাশি সমুদ্রের দক্ষিণা হাওয়া, এবং সমুদ্রের ঢেউ, সূর্য অস্ত্র উপভোগ করার একটি সুন্দর স্থান তৈরি হয়েছে,কুয়াকাটা হোটেল আল বেল্লাল, এর মালিক বলেন কুয়াকাটার চৌরাস্তা পয়েন্ট থেকে পশ্চিম দিকে কিছুক্ষণ চলতেই, দু চোখে ভেসে আসবে বেরিবাঁধ রক্ষা জন্য ব্লক দিয়ে সাজানো, একদিকে বেরিবাঁধ রক্ষা পেয়েছে অন্যদিকে সমুদ্র সৈকত উপভোগ করার এবং বন্ধুদের সাথে বসে আড্ডা দেওয়ার স্থান হয়েছে৷

সবার ইচ্ছা, বিশাল জলরাশির কোল ঘেঁষে এক টুকরো সবুজ দ্বীপের মতই সাগরকন্যা কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত, সম্পূর্ণ লকডাউন জমানোত শেষে যেন এমনি থাকে কুয়াকাটার রূপ।

মোঃ হুমায়ুন কবির: আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।

ad