patrika71
ঢাকাসোমবার - ২১ নভেম্বর ২০২২
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে ভূপর্যটকের বসতভিটা পুনরুদ্ধার করে সাইনবোর্ড টাঙ্গালো প্রশাসন

উপজেলা প্রতিনিধি, বানিয়াচং
নভেম্বর ২১, ২০২২ ১১:০৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আকিকুর রহমান রুমনঃ-হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বিশ্বখ্যাত ভূপর্যটক রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার করে“রামনাথ বিশ্বাস স্মৃতি পাঠাগারের নামে সাইনবোর্ড টাংগিয়েছেন বানিয়াচং উপজেলা প্রশাসন।

২১ নভম্বর সোমবার দুপুর ১২ টায় বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে সহকারী কমিশনার(ভূমি) ইশফাতআরার নেতৃত্বে(ভূমি) কার্যালয়ের সার্ভেয়ার মোঃ হাবিবুর রহমান, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রেজাউল করিম ও চেইনম্যান নূরুল আমীন উপস্থিত হয়ে উক্ত উদ্ধারকৃত জায়গায় সরকারি সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে চারদিকে তাদের খুটি গেরে দেওয়া হয়েছে।

এ সময় তাদের সাথে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)অজয় চন্দ্র দেবের নির্দেশে থানার এসআই রাকিব হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপস্থিত থেকে উদ্ধার কাজে সহযোগীতা করেন।

হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের উক্ত জায়গাটি রেকর্ডভূক্ত ১/১নং খতিয়ানের ১ একর ১৬ শতাংশ ভূমি রামনাথ বিশ্বাস স্মৃতি পাঠাগারের জন্য প্রস্তাবিত ভূমি উল্লেখ করে সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, বানিয়াচং উপজলা সদরের ২নং উত্তর পশ্চিম ইউনিয়নের আমীরখানী মৌজায় ভূপর্যটক রামনাথ বিশ্বাসের পারিবারিক ভূ-সম্পত্তির প্রায় সাড়ে ৪ একর ভূমি দখল করে রেখেছে স্থানীয় রাজাকারের ভাই ভূমিদূস্য ওয়াহেদ গং।

ইতিমধ্যে ৩ একরের চেয়ে বেশি ভূমি দখলদার ওয়াহদ গং বিভিন্ন জাল-জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে নিজেদের নামে রেকর্ড ভুক্ত করে ভোগ দখল করে আসছে। এরমধ্যে মোট নয়টি দাগের ১ একর ১৬ শতাংশ ভূমি রেকর্ডভূক্ত করতে পারে নাই ওয়াহেদ গং। কিন্তু জায়গা তার দখলে রেখেই বসবাস করে আসছে। কিন্তু সেই ভূমিটি বর্তমানে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নামে রেকর্ডভূক্ত হয়।

এই বিশ্ববিখ্যাত ভূপর্যটক রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা হলো বানিয়াচং উপজেলা সদরের ২নং উত্তর পশ্চিম ইউনিয়নের বিদ্যাভূষন পাড়ায়।তিনি বাইসাইকেল দিয়ে বিশ্বভ্রমন করেছিলেন। এমনকি ভ্রমনবিষয়ক এর উপরে তার লেখা বই রয়েছে প্রায় ৪০টির মতো। এছাড়াও কলকাতায় রয়েছে তার নামকরণে একটি রাস্তা।
অথচ নিজের পৈতৃক বসতভিটাটি রয়েছে রাজাকারের এক ভাই ভূমিদস্যুর দখলে।

এই বিশ্বখ্যাত রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটাটি সারা দেশ থেকে দেখতে আসেন অনেকেই। কিন্তু সারাদেশ থেকেই দেখতে আসা পর্যটকদের মধ্যে সাইক্লিস্টসহ বিভিন্ন পিন্ট ইলেকট্রনিক মিডিয়ার জাতীয় পর্যায়ের সাংবাদিকরাও আসেন। অথচ বাড়িতে আসলেই দখলদার ওয়াহেদ ও তার লাঠিয়াল বাহিনীর দূর্ব্যবহার ও হামলার শিকার হয়ে থাকেন অনেকেই। যার কারণে দেশ বিদেশ থেকে আসা পর্যটকদের আর রামনাম বিশ্বাসের বাড়িটি ঘুরে না দেখেই হতাশ হয়ে ফিরে যেতে হয় সবাইকে। সর্বশেষ চলতি বছরের ১২ সেপ্টেম্বর ৪সাংবাদিক ওই বাড়িটিতে গিয়ে দখলদার ওয়াহেদ গংদের হামলার শিকার হন।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদ্মা সিংহ’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলন,এই ভূমি আমাদের ১/১ খতিয়ানভূক্ত।এই ভূমি আমাদের দখলে রয়েছে সময় সুযাগ এবং বরাদ্ধ সাপেক্ষে এই ভূমিতে রামনাথ বিশ্বাসের নামে স্মৃতি পাঠাগার স্থাপন করা হবে।

পত্রিকা একাত্তর/ আকিকুর রহমান রুমন