patrika71 Logo
ঢাকামঙ্গলবার , ২৩ নভেম্বর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রকাশ্য সড়কের উপর পাইপলাইন বসিয়ে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
নভেম্বর ২৩, ২০২১ ৩:৩৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

বটিয়াঘাটা, পাইকগাছা, দারুনমল্লিক সড়কে রাস্তার উপর পাইপবসিয়ে বালু উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার মাইলমারা নামক স্থানে রাস্তার উপর পাইপ বসিয়েছে একটি বালু সিন্ডিকেট চক্র। ফলে প্রতিনিয়ত সড়কে চলাচল কারী যাত্রীসহ গাড়ি চলাচলের ব্যাপক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোটখাট দুর্ঘটনা। প্রকাশ্য দিবালোকে দিনের পরে দিন সরকারি সড়কের উপর পাইপলাইন দিয়ে বালু উত্তোলন করছেন বটিয়াঘাটার নজরুল ইসলাম। খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়, বলাবুনিয়া, মাইলমারা ও মাইটভাঙ্গা এলাকায় রাস্তার কাজের জন্য উক্ত পাইপলাইন বসিয়ে বালু উত্তোলন করছেন। মাসোয়ারা চুক্তির বিনিময় এই বালু সিন্ডিকেট চক্র প্রকাশ্য দিবালোকে বালু উত্তোলন করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে উক্ত রাস্তার কাজের সাথে জড়িত ঠিকাদার মোঃ মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, রাস্তার উপর পাইপলাইন দিয়েছে বটিয়াঘাটার সাবেক মেম্বার নজরুল ইসলাম। তার কাছ থেকে আমরা বালু কিনে রাস্তায় দিচ্ছি। খুলনা থেকে পাইকগাছা গামী বিভিন্ন যানবাহন চলাচলের সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন একাধিক গাড়ি চালক। ইজিবাইক চালক সমীরণ জোয়ার্দার ও সমির মন্ডল বলেন,আমাদের ইজিবাইক চালাতে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এখানে পাইপ দিয়ে রাস্তা উচু করার কারনে ইজিবাইক এর নিচে আঘাত লেগে গাড়ির অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। প্রায় সময় এখানে গাড়ির সাথে সংঘর্ষ ও দুর্ঘটনা ঘটছে। খুলনার জিরো পয়েন্ট এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা মোঃ তাইজুল ইসলাম রাজা বলেন, এখান থেকে আমি আমার প্রাইভেটকার নিয়ে গাওঘরা যাওয়ার পথে পাইপলাইনের ইটের আঘাতে আমার গাড়ির নিচের একটি অংশ ভেঙে যায়। শুধু তাই নয় উক্ত পাইপলাইনের উপর প্রাইভেট ওঠার সাথে সাথেই গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়। এলাকাবাসি ও সচেতন মহল বলছে,কিভাবে প্রকাশ্য দিবালোকে একটি সড়কের উপর পাইপলাইন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে চলেছে? স্থানীয় নব নির্বাচিত ইউপি সদস্য কিংকর রায় বলেন,সরকারি রাস্তার উপর এই ভাবে পাইপলাইন বসিয়ে বালু উত্তোলন করার কারণে প্রতিনিয়ত এখানে ঘটছে ছোটখাট দুর্ঘটনা। আমি অবিলম্বে এই বালু সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা জোরদাবী করছি। এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে চাইলে,তারা এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি নয়।

আরো পড়ুনঃ  গৌরীপুরে অবৈধ ভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন

পরে সড়ক ও জনপথের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শহিদুল ইসলাম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী লাবনী আফরোজ,ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু নাঈম এর মোবাইল নাম্বরে একাধিকবার কথা বলার চেষ্টা করেও তাদের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এলাকাবাসি ও সড়কে চলাচলকারী পথচারী,বিভিন্ন গাড়ি চালক অবিলম্বে রাস্তার উপর থেকে পাইপলাইন উচ্ছেদের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি।