patrika71 Logo
ঢাকাসোমবার , ৮ নভেম্বর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ: শাস্তির জন্য শিক্ষাকমিটির সুপারিশ

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
নভেম্বর ৮, ২০২১ ৫:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা গৌরীপুর ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এ দিকে অভিযুক্ত শিক্ষককে তদন্ত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সুপারিশ করেছে উপজেলা শিক্ষা কমিটি। এর আগেও ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওঠা বিদ্যালয়ের স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ ও প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করেছে শিক্ষা কমিটি।

রোববার বিকেলে উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খানের কার্যালয়ে আয়োজিত শিক্ষা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত শেষে এই সুপারিশ করা হয়। শিক্ষা কমিটির ওই সভায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ছাড়াও ইউএনও হাসান মারুফ, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মনিকা পারভীন, শিক্ষা কমিটির সদস্য আমজাদ হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন, আম্বিয়া আক্তারসহ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুনঃ  পুলিশের অভিযানে সাজা প্রাপ্ত পালাতক আসামি আটক

উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান বলেন, এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হয়রানির অভিযোগের ঘটনা নিয়ে আমরা বিব্রত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসান মারুফ বলেন, এর আগেও শিক্ষক রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে এ ধরনের একাধিক অভিযোগ ছিল। তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো অধিকতর তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মনিকা পারভীন বলেন, শিক্ষা কমিটির চিঠি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর পাঠানো হয়েছে। কর্তৃপক্ষ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আরো পড়ুনঃ  গোমস্তাপুরে ৩ দিন যাবত নিখোঁজ ২ কিশোরী

এর আগে, গত ৩১ অক্টোবর সকালে পৌর শহরের শহীদ মঞ্জু সড়ক এলাকায় মোহাম্মদ রফিকুল ইসলামের বাসায় প্রাইভেট পড়তে গিয়ে যৌন নিপীড়নের শিকার হন ওই স্কুলছাত্রী। পরে শিক্ষার্থীর বাবা বিচার চেয়ে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। এ দিকে স্কুলছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর অভিযুক্ত শিক্ষক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ১৪ দিনের ছুটি চেয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট আবেদন করেছেন। শিক্ষক রফিকুল ইসলাম তার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ মিথ্যা,ষড়যন্ত্রমুলক ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছেন।

মো. হুমায়ুন কবির: গৌরীপুর, ময়মনসিংহ।