patrika71 Logo
ঢাকারবিবার , ২৯ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দীর্ঘ ৯ মাসেও অপারেটরদের সাথে চুক্তি চূড়ান্ত করতে পারেনি

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
আগস্ট ২৯, ২০২১ ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ad

স্বল্পমূল্যে শিক্ষার্থীদের কাছে ইন্টারনেট প্যাকেজ পৌঁছে দিতে গত বছরের নভেম্বর মাসে দুটি মোবাইল অপারেটরের মধ্যে একটি বেছে নেয়ার কথা গণমাধ্যমে বলেছিলেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো: আবু তাহের। কিন্তু প্রায় নয় মাসেও অপারেটরের সাথে চুক্তি সারতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী রনি বলেন, ‘প্রথম দিকে যখন দীর্ঘ সময় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ছিলো তখন অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সিম অপারেটর গুলোর সাথে চুক্তির মাধ্যমে ডাটা প্যাক প্রদানের কথা বলে। এই সিদ্ধান্তে আমরা অনেকটাই আশ্বাস ফিরে পেয়েছিলাম। কিন্তু এটা খুবই দুঃখজনক যে এখন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ বিষয়ে কার্যকরী কোন উদ্যোগ্য নিতে পারেনি। আশা করবো খুব দ্রুত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই সমস্যার সমাধান করে আমাদের ডাটা প্যাক ব্যবহার করার সুযোগ তৈরি করে দিবে।

স্বল্পমূল্যে শিক্ষার্থীদের কাছে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়ার ব্যাপারে অপারেটরদের সাথে সমন্বয় করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান। তার কাছে অপারেটরদের সাথে চুক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে মোবাইল অপারেটরদের বেশ কয়েকবার মিটিং হয়েছে। সবকিছু চূড়ান্ত করে আমি রেজিস্ট্রার দপ্তরে ফাইল পাঠিয়েছি। যতটুকু মনে আছে, গ্রামীণফোনে মাসে দুইশ টাকায় বিশ জিবি ইন্টারনেটের একটি প্যাকেজ চূড়ান্ত হয়েছিল। বাকিটুকু বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার থেকে জানতে পারবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো: আবু তাহেরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ আমরা গ্রামীনফোনকে সিলেক্ট করেছিলাম। গত বুধবার গ্রামীণফোনের প্রতিনিধিদের সাথে কথা হয়েছে। আগামী সোম-মঙ্গলবারের মধ্যে আমরা এ বিষয়টি চূড়ান্ত করতে পারবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘ গত ২৩ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১ সেপ্টেম্বর থেকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সশরীরে চূড়ান্ত পরীক্ষা গ্রহণের উদ্যোগ নিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে। তারা এর আগে সুলভ মূল্যের ইন্টারনেটের জন্য স্মারকলিপি দিয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে তারা সশরীরে পরীক্ষার ব্যাপারেই জোর দিচ্ছে। তবে আমাদের যেহেতু সিদ্ধান্ত হয়েছিল। সেটা আমরা চূড়ান্ত করার চেষ্টা করবো।’

উল্লেখ্য, গত বছরের ১ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ স্নাতক ও স্নাতকোত্তর চূড়ান্ত পরীক্ষা দ্রুত নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বরাবর স্মারকলিপি জমা দেন। সে স্মারকলিপিতে যেকোন সিম কোম্পানির সাথে চুক্তির মাধ্যমে স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেটের ব্যবস্থা করার দাবিও ছিল।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজের কাছে সুলভ মূল্যে ইন্টারনেট প্যাকেজের ব্যাপারটি জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘যেটুকু জেনেছি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রবি ও গ্রামীণফোনের সাথে বসেছিল। এরপর আর আমাদের কিছু জানায়নি। করোনার সংক্রমণ বাড়ছে, পদক্ষেপ নিচ্ছি এসব বলে সময় পার করেছে প্রশাসন।’

‘এখনো চুক্তি চূড়ান্ত না হওয়ার বিষয়টিকে কিভাবে দেখছেন’ এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, এটা প্রশাসনের ব্যর্থতা। অনেক অসচ্ছবল শিক্ষার্থী ডাটা না থাকার কারনে ক্লাস করতে পারছে না। এই প্যাকেজটা যদি আগে দেয়া হতো তাহলে তাদের জন্য উপকার হতো।’

সামনে এ বিষয় নিয়ে প্রশাসনের কাছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ যাবে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সশরীরে ধাপে ধাপে পরীক্ষা নেয়ার জন্য আমরা ২৩ তারিখ স্মারকলিপি দিয়েছি প্রশাসন বরারব। তাই আর এই বিষয়টা নিয়ে আগাচ্ছি না।’

কুবি প্রতিনিধি: ইমরান হোসাইন।

ad