patrika71 Logo
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৬ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভাবীর মাথা ফাটালো বখাটে দেবর: নওগাঁ

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
আগস্ট ২৬, ২০২১ ৭:১৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

নওগাঁর সাপাহারে ভাই ভাবীকে ভিটে মাটি ছাড়া করতে ভাবীর মাথায় আঘাত করে এক গৃহ বধুর মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে পাষান্ড দেবর। গতকাল বুধবার সন্ধ্যার পূর্ব মহুর্তে সাপাহার উপজেলার খঞ্জনপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটিয়েছে সাব্বির হোসেন এর ছেলে আইনুল হক (৪০) ও তার ভাই হানিফা (৩৫)।

ঘটনার পর আহত গৃহবধু সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে এবং গৃহবধুর স্বামী তোজাম্মেল হোসেন বাদী হয়ে সাপাহার থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে।

থানায় দাখিলকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে ওই গ্রামের সাব্বির হোসেন এর বড় ছেলে তোজােেম্মল হোসেনকে বসতবাড়ী ছাড়া করতে দীর্ঘ দিন ধরে তার দ্বিতীয় মা’র ছেলে সৎভাই আইনুল হক ও হানিফা বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করে আসছিল। তারই সূত্র ধরে তোজাম্মেল হোসেন চাকুরীর সুবাদে বাহিরে থাকায় সৎভাইদ্বয় তোজাম্মেল হোসেন এর স্ত্রী তাদের ভাবীকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন সহ ঝগড়া বিবাদে লিপ্ত হয়ে থাকত। ফলে কয়েক দফায় স্থানীয়ভাবে শালীস বিচার হলে আইনুল ও হানিফা ঝগড়া বিবাদ না করার জন্য মুচলেকাও দিয়েছিল।

ঘটনার দিন সন্ধ্যার পূর্বমহুর্তে তোজাম্মেল হোসেন এর স্ত্রী ভাত রান্নার জন্য চুলায় ভাত বসালে পূর্বপরিকল্পিতভাবে আইনুল ও তার ভাই হানিফা তাদের ভাবীকে একা পেয়ে লোহার রড দিয়ে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই এলোপাথাড়ী মার পিট করতে থাকে। এসময় রডের একটি আঘাত গৃহবধুর মাথায় লাগলে তার মাথা ফেটে ফিনকি দিয়ে রক্ত বের হয় এবং সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। মারপিটের শব্দ শুনে পাশের বাড়ীর লোকজন দৌড়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করে সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তার মাথায় ৭টি সেলাই দিয়ে ওই গৃহবধুকে ওয়ার্ডে ভার্তি করে দেয়।

সংবাদ পেয়ে গৃহবধুর স্বামী তোজাম্মেল হোসেন তার কর্মস্থল হতে ছুটে এসে স্ত্রীর খোঁজ খবর নেন এবং রাতেই থানায় তার সৎভাই আইনুল হক ও হানিফাকে আসামী করে একটি অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল ও আহত রোগীকে পরিদর্শন করেন। এ বিষয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকারের সাথে কথা হলে তিনি অভিযোগের কথা স্বীকার করেন এবং তদন্ত স্বাপেক্ষে বিষয়টির আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।

তোফায়েল আহমেদ: সাপাহার, নওগাঁ প্রতিনিধি।

ad