patrika71 Logo
ঢাকাবুধবার , ১৮ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকারী খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ, কৃষকের ভোগান্তি!

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
আগস্ট ১৮, ২০২১ ৯:৫১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

বরগুনার আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের হলদিয়া গ্রামে অবৈধভাবে সরকারী খালে বাঁধ দিয়ে পানি আটকে মাছ চাষ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ওই গ্রামের শত-শত একর কৃষি জমিতে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে।

স্থাণীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা হলদিয়া গ্রামের ছোট মোল্লা বাড়ীর নিকট সরকারী ছবদরের খালে গত কয়েক বছর ধরে স্থানীয় প্রভাবশালী জাকির হোসেন মোল্লা, নসা মোল্লা, দুলাল মোল্লা, ফারুক মোল্লা, আফজাল মোল্লা ও শানু মোল্লা অবৈধ ভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করে আসছে। এতে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় ওই এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক ওই এলাকার কৃষকদের সুবিধার্থে নির্মিত ইউড্রেনটি বর্তমানে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

অপরদিকে ওই এলাকার কৃষি জমির জলাবদ্ধতা স্থায়ীভাবে দূর করার জন্য তৎকালিন হলদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মরহুম মাহবুবুল আলম ঝন্টু তালুকদার ১৯৯৮ সালে সরকারী ছবদরের খালের উত্তর অংশে বড় খালের সাথে সংযোগ স্থাপনের জন্য একটি কালভার্ট নির্মাণ করে দেয়। মোল্লাবাড়ীর লোকজন ওই কালভার্টের মুখটি মাটি দিয়ে ভরাট করে এবং ওই সরকারী খালের তিনটি স্থানে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করে পানি নিঃস্কাশন ব্যবস্থা বন্ধ করে ফেলে। এর ফলে অতি বৃষ্টিতে ওই এলাকার শত-শত একর কৃষি জমিতে স্থায়ীভাবে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে।

সরেজমিনে আজ বুধবার গিয়ে দেখা গেছে, কালর্ভাটির মুখে মাটি দিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। সরকারী ছবদরের খালটি নিজেদের দাবী করে ওই খালে অবৈধভাবে তিনটি বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করছেন ছোট মোল্লাবাড়ির লোকজন। বর্তমানে ওই খালে পানি না থাকায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক নির্মিত ইউড্রেনটি পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

এসময় স্থানীয় ভূক্তভোগী কৃষকরা অভিযোগ করে জানায়, সরকারী ছবদরের খালে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করার কারনে কৃষি জমিতে স্থায়ীভাবে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। কৃষি জমির জলাবদ্ধতা দ্রæত নিরসনের জন্য স্থাণীয় প্রভাবশালী জাকির হোসেন মোল্লা, নসা মোল্লা, দুলাল মোল্লা, ফারুক মোল্লা, আফজাল মোল্লা ও সানু মোল্লার দখলে থাকা সরকারী ছবদরের খালের বাঁধ তিনটি কেঁটে দিয়ে পানি নিষ্কাশনের জন্য সরকারী কালভার্টের মুখটি খুলে দেওয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম স্বপন বলেন, ছোট মোল্লা বাড়ীর লোকজন সরকারী ছবদরের খালটি তাদের রেকর্ডিয় দাবী করে ওই খালে বাঁধ দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছে। অতিবৃষ্টির পানি ওই খাল দিয়ে একসময় নিস্কাশন হতো। এখন খালটির একটি অংশে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করায় পানি নিস্কাশনে বাঁধাগ্রস্থ হচ্ছে। এতে কৃষি জমিতে স্থায়ীভাবে জলাবদ্ধতা দেখা দিচ্ছে।

হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান মিন্টু মল্লিক বলেন, বিষয়টি আমি সরেজমিনে দেখে ও কৃষি জমিতে যাতে স্থায়ী জলাবদ্ধতা না হয় তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো। উপজেলা কৃষি অফিসার সিএম রেজাউল করিম মুঠোফোনে বলেন, কৃষকদের সমস্যা হলে ও এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আসাদুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। কৃষকদের সুবিধার্থে নির্মিত পরিত্যাক্ত ইউড্রেনটি সচল করার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোঃ হুমায়ুন কবির: আমতলী, বরগুনা প্রতিনিধি।

ad