patrika71 Logo
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৪ জুন ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. কবিতা
  10. করোনাভাইরাস
  11. কৃষি
  12. খেলাধুলা
  13. চাকরী
  14. জাতীয়
  15. টেকনোলজি
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কঠোর বিধি নিষেধ পালনে মাঠে প্রশাসন : ঝিকরগাছা

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
জুন ২৪, ২০২১ ৬:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আঃ জলিল : যশোরের ঝিকরগাছায় সরকারি কঠোর বিধি নিষেধ পালনে অবশেষে কঠোর অবস্থানের মধ্যে মাঠে মেনেছে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ। উপজেলা ও পৌর এলাকায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সম্প্রতি ১সপ্তাহের পৌর এলাকায় সরকার ঘোষিত নির্দেশনা বাস্তবায়নে ও সর্বসাধারণকে করোনা সংক্রমণ হতে আরো বেশি সচেতন করতে তেমন কোন উপকার না হওয়ায় পুনঃরায় পৌরসভা সহ উপজেলার সকল ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) থেকে আবারও এক সপ্তাহের বিধি নিষেধ আরোপ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

কঠোর বিধি নিষেধ আরোপের ২য় সপ্তাহে ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়ে মাঠে রয়েছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাহাবুবুল হক। তিনি কঠোর বিধি নিষেধ পালনের সময় বলেন, দুপুর ১২টার পর কোন দোকান খোলা থাকবে না। যদি সরকারি কঠোর বিধি নিষেধ না মেনে কেউ তার ব্যক্তিগত মতামতে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখে তাহলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে তালা ঝুলিয়ে রাখা হবে এবং ব্যবসায়ীর উপর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি সাধারণ মানুষের উদ্দেশে বলেন, উপজেলা ও পৌরধীন যে সব এলাকায় করোনা সংক্রমণের হার বেশি সেই এলাকায় সর্বসাধারণের অবাদ চলাচল নিয়ন্ত্রণে কঠোর নজরদারিতে রেখে একই সাথে আরো বেশি সচেতনতা বৃদ্ধি ও জনসমাগম ঠেকাতে বিভিন্ন আমরা কাজ করে চলেছি। আপনারা সরকারি কঠোর বিধি নিষেধ মানুন। মাস্ক পরিধান করুণ ও বিনা প্রয়োজনে ঘর হতে বাহির হবেন না।

চলমান বিধি নিষেধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাহাবুবুল হককে সর্বিক সহযোগিতায় উপজেলাপরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম, পৌর মেয়র আলহাজ্ব মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুবনা তাক্ষী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ডাঃ কাজী নাজিব হাসান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. রশিদুল আলম, থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ সহ স্থানীয় সংবাদকর্মী, গ্রাম পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিরা কাজ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য ক্রমাগতই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।