patrika71
ঢাকাসোমবার - ২১ নভেম্বর ২০২২
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গ্রীন ভয়েস বেরোবি শাখার ভিন্নধর্মী আয়োজন

নিজস্ব প্রতিনিধি
নভেম্বর ২১, ২০২২ ১১:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পলিথিনের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে পরিবেশকে ভালো রাখতে ব্যতিক্রমী কার্যক্রম করেছে গ্রীন ভয়েস বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

সোমবার (২১ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টায় রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে “টেকসই ব্যাগ নিয়ে বাজারে চলুন, রাক্ষস পলিথিন বর্জন করুন”এরকম বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত ফেস্টুন প্রদর্শন করেন।সেখানে লেখা ছিলো চট বা পাটের ব্যাগ ব্যবহার করুন।

মোজাহেদুর ইসলাম ইমন এর সঞ্চালনায় ও স্বপন মাহমুদের সভাপতিত্বে উপস্থিত উক্ত সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।এসময় উপস্থিত ছিলেন গ্রীন ভয়েস রংপুর সরকারি কলেজ শাখার সমন্বয়ক সুমাইয়া তাসকিন নিনা।

এসময় গ্রীন ভয়েসের সভাপতি স্বপন মাহমুদ বলেন,প্লাস্টিক বা পলিথিন এমন একটি জিনিস যা মাটিতে গেলে ক্ষয় হয়না বা মাটির সাথে মিশে যায়না। এটি মাটিতে পানি ও প্রাকৃতিক যে পুষ্টি উপাদান রয়েছ তার চলাচলকে বাধাগ্রস্ত করে। যার ফলে মাটির গুনগত মান হ্রাস পায়। গাছ তার খাবার পায়না। মাটি ও পানিতে প্লাস্টিক কণা ছড়িয়ে পড়ে। যা হয়ত পানি থেকে মাছের শরীরে যাচ্ছে।

মাটিতে প্লাস্টিকের তৈরি টক্সিক রাসায়নিক পদার্থ গাছে মিশে যাচ্ছে। আর তা শেষমেশ শুধু পশু পাখি নয় মানুষের শরীরেও এসে পৌছায়। প্লাস্টিক মানুষের শরীরে আরো অনেক মরণ ব্যাধির পাশাপাশি ক্যান্সারের জন্য দায়ী।

তিনি আরোও বলেন,আমাদের আজকের আয়োজনের বার্তা ছিল, আমরা ওয়ান টাইম প্লাস্টিকের পরিবর্তে টেকসই ব্যাগ বা চটের ব্যাগ অথবা কাপড়ের ব্যাগ ব্যবহারের ব্যবহারে পরামর্শ দিচ্ছি।

গ্রীন ভয়েসের সাধারণ সম্পাদক লিমন ইসলাম বলেন, আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাপনে যে জিনিসগুলো ব্যবহার করি সেগুলোর উচ্ছিষ্ট অংশ আমরা পরিবেশে ফেলে দেই, এর বেশির ভাগই পলিথিন বা প্লাস্টিক। যার ভয়াবহতা দিন দিন বেড়েই চলছে। জমির উর্বরতা থেকে শুরু করে বায়ু দূষন, পানি নিষ্কাশনে বাধা, জলাবদ্ধতা ইত্যাদি বিষয় গুলো প্রতিনিয়ত চোখে পড়ার মত। এর সমস্যায় প্রতিনিয়ত আমরাই জর্জরিত। সমাজের সচেতন নাগরিক হিসেবে পলিথিনের ব্যবহার কমানো সহ এর বিকল্প হিসেবে টেকসই ব্যাগ ব্যবহারে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করার প্রচারনা চালানো হয়। আমরা আশাবাদী এভাবে যদি সবাই সচেতন হয়ে এগিয়ে আশে তাহলে আমাদের পরিবেশ তার সৌন্দর্য ফিরে পাবে।প্রকৃতি হয়ে উঠবে আরো প্রানোজ্বল।

পত্রিকা একাত্তর/ ফারহান সাদিক সাজু