patrika71 Logo
ঢাকাশুক্রবার , ১২ নভেম্বর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

করিমগঞ্জে নির্বাচিত বিজয়ী যারা: আওয়ামী লীগ ৫, জাতীয় পার্টি ১, স্বতন্ত্র ৪

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
নভেম্বর ১২, ২০২১ ৫:৩২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় ধাপে ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) সকাল ৮ টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪ টায় শেষ হয়।ভোট গণনা শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।রিটানিংকর্মকর্তাদের কার্যালয়ে সূত্রে জানা গেছে ফলাফলে করিমগঞ্জ উপজেলায় ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫ টিতে আওয়ামী লীগ, ১টিতে জাতীয় পার্টি ও ৪ টিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।বাকি ১টি ইউনিয়নের ১ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত রয়েছে।স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে বিএনপির তিনজন ও একজন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

আওয়ামী লীগের বিজয়ীরা হচ্ছেন, গুজাদিয়া ইউনিয়নে সৈয়দ মাসুদ, বারঘড়িয়া কামরুল আহসান কাঞ্চন,নিয়ামতপুর ইউনিয়নে মো:হেলিম,গুনধর ইউনিয়নে আবু সায়েম রাসেল ও জাফরাবাদ ইউনিয়নে আবু সাদাৎ মো:সায়েম।কিরাটন ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী রফিকুল ইসলাম বিজয়ী হয়েছেন।স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে কাদির জঙ্গল ইউনিয়নে আরিফ উদ্দিন কনক,দেহুন্দা ইউনিয়নে এম এ হানিফ, জয়কা ইউনিয়নে হুমায়ুন কবির ও নোয়াবাদ ইউনিয়নে মোস্তফা কামাল বিজয় হয়েছেন।সুতার পাড়া ইউনিয়নের ১টি কেন্দ্র স্থগিত থাকায় চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি।তবে গ্রহণ ভোটের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কামাল হোসেন এগিয়ে রয়েছেন।কিরাটন ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী রফিকুল ইসলাম( লাঙ্গল) ২ হাজার ৮৩২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর রহমান (চশমা) পেয়েছেন ২ হাজার ৭৯৬ ভোট।

আরো পড়ুনঃ  চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের সাথে আচরণ বিধি ও আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে মতবিনিময় সভা

বারঘড়িয়া আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কামরুল আহসান কাঞ্চন (নৌকা) ৫ হাজার ৩৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টি মনোনীত বর্তমান চেয়ারম্যান আইয়ুব উদ্দিন(লাঙ্গল) পেয়েছেন ৪ হাজার ৭৮ ভোট।

গুনধর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু সায়েম রাসেল (নৌকা) ৫ হাজার ১৫৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত আমিনুল হক কাদের (ঘোড়া) পেয়েছেন ৪ হাজার ৮২১ ভোট।

জাফরাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আবু সাদাৎ মো:সায়েম(নৌকা) ২ হাজার ৭৭৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুদ্দিন ফকির মিলন(চশমা) পেয়েছেন ২ হাজার ১৩৯ ভোট। গুজাদিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সৈয়দ মাসুদ (নৌকা) ৮ হাজার ৩১১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী হাফিজুল ইসলাম তুহিন(চশমা) পেয়েছেন ৭ হাজার ৬৮৪ ভোট।নিয়ামতপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো:হেলিম (নৌকা) ৮ হাজার ৬১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টি মিছবাহ উদ্দিন সায়েল (লাঙ্গল) পেয়েছেন ৭ হাজার ৩৩৬ ভোট।

আরো পড়ুনঃ  বটিয়াঘাটায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বেসরকারী ভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

নোয়াবাদ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তফা কামাল (চশমা) ৪ হাজার ২০৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টি প্রার্থী মাসুদুজ্জামান রতন (লাঙ্গল) পেয়েছেন ৩ হাজার ৩২৪ ভোট।জয়কা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হুমায়ুন কবির (অটোরিকশা) ৩ হাজার ৫৮১ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন (চশমা)পেয়েছেন।৩ হাজার ১৩৭ ভোট।দেহুন্দা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম এ হানিফ (আনারস) ৪ হাজার ২৬৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সন্জু চশমা পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৬৫ ভোট।

কাদিরজঙ্গল ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফ উদ্দিন কনক(অটোরিকশা) ৪ হাজার ১২৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিপন (ঘোড়া)পেয়েছেন ৩ হাজার ৬৪৮ ভোট।

দিলোয়ার হোসাইন নানক, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি।