patrika71 Logo
ঢাকাশুক্রবার , ২৭ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পুলিশ সদস্য তারেকুর রহমানের সততা

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
আগস্ট ২৭, ২০২১ ৫:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

কক্সবাজারের ছেলে তারেকুর রহমান, বর্তমানে নরসিংদীর জেলার পলাশ থানার পুলিশ কনস্টেবল (কম্পিউটার অপারেটর)। গতকাল রাতে তার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফোটে উঠেছে।

তিনি বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে বিট পুলিশিং সভায় উপজেলার ডাংগা ইউনিয়ন পরিষদে যান। তারপরে ডাংগা বাজারের একটি হোটেলে দুপুরের খাবার খেতে বসেন তারেকুর রহমান। ঠিক একই সময় বৃদ্ধা এক মহিলা এসে হোটেল মালিকের কাছে খাবার দিতে বলেন। কিন্তু হোটেল মালিক তাকে খাবার দিতে চাননি। এই দৃশ্যটি চোখে পড়ে পুলিশ কনস্টেবল তারেকুর রহমানের। তার কাছে বিষয়টি খুবি খারাপ লাগে।

তারেকুর রহমান আমাদের জানান, সেই হোটেল মালিকের কাছে খাবার চেয়েও না পেয়ে যখন কান্না ভাব নিয়ে চলে যাচ্ছিলেন বিষয়টি আমার নজরে আসে। এমন দৃশ্য দেখে খুব খারাপ লাগলো। চাচিকে ডাক দিয়ে আমার কাছে নিয়ে আসলাম। পরে তাকে জিঙ্গেস করলাম আপনি কান্নাকাটি করতেছেন কেন? জবাবে বয়স্ক মহিলা বললেন বাবা আমি সকাল থেকে কিছুই খায়নি সেই মহিলা।

কিছু খাবার খেতে পারলে আমি আর কিছুক্ষণ ভিক্ষা করতে পারতাম। ভিক্ষা করতে পারলে আমি কিছু ঔষধ আর কিছু চাল, ডাল কিনতে পারতাম। তাৎক্ষণিকভাবে আমি হোটেলের লোকজনদের ডাক দিয়ে বয়স্ক মহিলা চাচিকে খাবারের জন্য নিহারি আর রুটির ব্যবস্থা করিয়ে দিই।

খাওয়ার সময় চাচিকে জিজ্ঞেস করলাম, চাচি আপনার ছেলে মেয়ে কতজন? চাচি বলল বাবা আমার কোন ছেলে মেয়ে নাই। চাচা কোথায় জিজ্ঞেস করলে চাচি বলেন বাবা তোমার চাচা আমাকে ফেলে অন্যত্র গিয়ে বিয়ে করে সুখের সংসার করিতেছে। বিষয়টি শুনে নিজের চোখের পানি সামলাইতে পারিনি।

খাওয়া শেষে চাচিকে ঔষধ আর চাল, ডাল কিনার জন্য কিছু টাকা দিলে চাচি আমার জন্য মন ভরে দোয়া করেন। ক্ষুদার্ত মায়ের বয়সী এই চাচির মুখে দুটো খাবার মুখে দিতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করি। আশা করি এভাবেই বাংলাদেশ পুলিশ এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

ad