patrika71 Logo
ঢাকাশনিবার , ২৬ জুন ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. কবিতা
  10. করোনাভাইরাস
  11. কৃষি
  12. খেলাধুলা
  13. চাকরী
  14. জাতীয়
  15. টেকনোলজি
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আরো তুর্কী সরঞ্জাম আসছে

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
জুন ২৬, ২০২১ ৫:৩০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বর্তমান সময়ে ধীরে ধীরে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনী ইউরোপীয় টেকনোলজি এর দিকে ঝুঁকছে।

একথা অনস্বীকার্য মাত্র ১০ বছর আগেও যেখানে চীন বাংলাদেশের একমাত্র মেজর আর্মস সাপ্লায়ার ছিল সেখানে ইউরোপিয়ান দেশসমুহ বিশেষ করে ন্যাটো অধিভুক্ত তুরস্ক বর্তমানে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীসমুহে আরো অত্যাধিক পরিমাণে মেজর আর্মস সাপ্লাইয়ের অর্ডার পাচ্ছে।

বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে দেশের ক্রয় করা সরঞ্জামাদিতে ট্রান্সফার অফ টেকনোলজি,ট্রান্সফার অফ সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়ারের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট দেশসমূহকে অগ্রাধিকার দেবার কথা অভিব্যক্ত করেছেন।

পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধির দরুণ তুরস্কের সাথে সামরিক সম্পর্ক ও দিনে দিনে গভীর হচ্ছে।যা পররাষ্ট্র সচীব মাসুন বিন মোমেন নিজেও স্বীকার করেছেন।

পার্শ্ববর্তী দেশসমুহের সামরিক ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়া বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব এর জন্য কোনমতেই হুমকী না এবং তা বাংলাদেশের সামরিক ব্যয় বৃদ্ধির কারণ ও না।

দেশের নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট কারণেই সামরিক ব্যয় ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং তা সামনের দিনগুলোতেও বৃদ্ধি পাবে।একই সাথে চীন থেকে সরঞ্জাম কিনা কমে গেলেও তা এখনই শূন্যের কোটায় নামছে না।

বরং সময়ের সাথে ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধির সাথে সাথে বাংলাদেশের অধিকাংশ সামরিক সরঞ্জাম ইউরোপীয় করবার মহাপরিকল্পনা রয়েছে।চীন যদি কম মুল্যে উচ্চতর প্রযুক্তির অফার করতে না পারে তবে আগামী ১০ বছরে চীন ধীরে ধীরে সেনা এবং বিমান বাহিনীর বিভিন্ন অর্ডার হারাবে।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনেও ইউরোপিয়ান এবং তুর্কী সরঞ্জাম ভাল পার্ফমেন্স দেখিয়ে এসেছে।তাই টেকনোলজিক্যাল সুপিরিয়রিটি বজায় রাখতে পারলে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীতে তুরস্কের জন্য একটি বৃহৎ এবং সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র অপেক্ষা করছে এতে কোনরূপ সন্দেহ নেই।

ইফতেখার নাঈম তানভীর / মহেশখালী