patrika71 Logo
ঢাকাশুক্রবার , ২৩ জুলাই ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

খুব শিঘ্রই সু-৩০ পাবে মায়ানমার

পত্রিকা একাত্তর ডেক্স
জুলাই ২৩, ২০২১ ১০:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

মায়ানমারকে সু-৩০ যুদ্ধবিমান ও ইয়াক-১৩০ এডভান্স ট্রেইনার বিমান সরবরাহ করবে বলে নিশ্চিত করেছে রাশিয়ান অফিসিয়াল।

রাশিয়ান মিলিটারি করপোরেশনের প্রধান ডিমিত্রি সুগায়েভ ও রোসোবোরোনএক্সপোর্ট এর প্রধান আলেক্সান্ডার মিখেভ আজকে (২৩ জুলাই) জানিয়েছে যে রাশিয়া মায়ানমারকে ভারী সমরাস্ত্র সরবরাহ চালু করবে।

উল্লেখ্য মায়ানমারে নতুন করে জান্তা সরকার ক্ষমতা দখলের পর সারাবিশ্ব থেকে মায়ানমারের উপর চাপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এবং বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন মায়ানমারের উপর বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলছে। কিন্তু রাশিয়ান ফেডারেশন জানিয়েছে তাদের সঙ্গে জান্তা সরকারের সুসম্পর্ক সৃষ্টি হয়েছে এর ফলে যুদ্ধবিমান এর মতো ভারি সরঞ্জাম সরবরাহ করবে।

সু-৩০ যুদ্ধবিমান হবে মায়ানমারের জন্য নতুন একটি প্লাটফর্ম। যার রেঞ্জ ৩০০০ কিমি। সুতরাং মিগ-২৯ থেকে এর রেঞ্জ দ্বিগুণেরও একটু বেশি। আর অস্ত্র বহনের সক্ষমতায়ও মিগ-২৯ এর দ্বিগুন ৮০০০ কেজি। রাডার সেন্সরের দিক দিয়েও এটি খুব উন্নত। রাশিয়ার তৈরি প্রায় সকল ধরনের এয়ার-এয়ার এবং এয়ার টু গ্রাউন্ড ক্ষেপণাস্ত্র বহন করতে পারে এই যুদ্ধবিমান।

যদিও মায়ানমারের এয়ারবেজগুলো বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে অনেক দূরে। তবে সুবিধাজনক জায়গায় এয়ারবেজ তৈরি করলে বাংলাদেশের নিরাপত্তার জন্য এটি হুমকি হবে। পাশাপাশি সমুদ্রে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্যেও এটি হুমকি হবে।
বাংলাদেশের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা শক্তিশালী নয়। পাশাপাশি নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজের এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম ও বেশি রেঞ্জের নয়।

যদি বাংলাদেশ মনে করে মায়ানমারকে কাউন্টার করা জরুরি তাহলে অবশ্যই ভালো মানের এয়ার ডিফেন্স ও যুদ্ধবিমান দরকার।

ইফতেখার নাঈম তানভীর : মহেশখালী

ad