প্রচ্ছদবিনোদন৫৫ বছরে পা রাখলেন নেওমি ওয়াটস

৫৫ বছরে পা রাখলেন নেওমি ওয়াটস

নেওমি ওয়াটস হলেন একজন ব্রিটিশ অভিনেত্রী ও চলচ্চিত্র প্রযোজক। আজ এই অভিনেত্রী ৫৫তম জন্মদিন নেওমি এলেন ওয়াটস ১৯৬৮ সালের ২৮শে সেপ্টেম্বর কেন্টের শোরহামে জন্মগ্রহণ করেন।

তার মাতা মিফানি “মিভ” এডওয়ার্ডস (বিবাহপূর্ব রবার্টস) ছিলেন একজন প্রাচীন সামগ্রী বিক্রেতা ও পোশাক ও সেট নকশাকার, এবং পিতা পিটার ওয়াটস (১৯৪৬-১৯৭৬) ছিলেন শো ব্যবস্থাপক ও শব্দ প্রকৌশলী, যিনি সঙ্গীতদল পিংক ফ্লয়েডের সাথে কাজ করতেন। মিভ ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করলেও এক থেকে সাত বছর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া বসবাস করতেন। ওয়াটসের মাতামহ ওয়েলশ বংশোদ্ভূত এবং মাতামহী অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ছিলেন।

তিনি অস্ট্রেলীয় নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র ফর লাভ অ্যালোন (১৯৮৬) দিয়ে চলচ্চিত্রে আগমন করেন এবং পরবর্তীকালে অস্ট্রেলীয় টেলিভিশন ধারাবাহিক হেই ড্যাড..! (১৯৯০), ব্রাইডস অব ক্রাইস্ট (১৯৯১), হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে (১৯৯১), ও চলচ্চিত্র ফ্লার্টিং (১৯৯১)-এ অভিনয় করেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেওয়ার পর ওয়াটস বছর খানেক অভিনেত্রী হিসেবে কাজ পেতে কষ্ট করেন, এবং ট্যাঙ্ক গার্ল (১৯৯৫), চিলড্রেন অব দ্য কর্ন চোর: দ্য গ্যাদারিং (১৯৯৬), ও ডেঞ্জারাস বিউটি (১৯৯৮) চলচ্চিত্র এবং স্লিপওয়াকার্স (১৯৯৭-১৯৯৮) টেলিভিশন ধারাবাহিকে কাজের সুযোগ পান।

Evend Shop

ওয়াটস ডেভিড লিঞ্চে মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলার মুলহল্যান্ড ড্রাইভ (২০০১) চলচ্চিত্রে উচ্চাক্ষাঙ্খী অভিনেত্রী চরিত্রে এবং ভীতিপ্রদ দ্য রিং (২০০২) চলচ্চিত্রে সাংবাদিক চরিত্রে অভিনয় করে আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন।

তিনি এরপর আলেহান্দ্রো গোন্সালেস ইনারিতুর নব্য-নোয়া চলচ্চিত্র ২১ গ্রাম্‌স (২০০৩) চলচ্চিত্রে দুঃখ ভারাক্রান্ত মায়ের চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০০০-এর দশকের তার পরবর্তী চলচ্চিত্রসমূহ ছিল আই হার্ট হাকাবিস (২০০৪), কিং কং (২০০৫), ইস্টার্ন প্রমিসেস (২০০৭), ও দি ইন্টারন্যাশনাল (২০০৯)

পত্রিকা একাত্তর/ মাসুদ পারভেজ

সম্পর্কিত নিউজ

সর্বশেষ নিউজ