patrika71
ঢাকারবিবার - ৩০ অক্টোবর ২০২২
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলনের সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি
অক্টোবর ৩০, ২০২২ ৩:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বাংলাদেশের ভূমিহীন কৃষক—শ্রমিক ও শ্রমজীবী নাগরিকদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন’ এর উদ্যোগে সংগঠনের সারাদেশের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে গতকাল ২৯ অক্টোবর, ২০২২ শনিবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত শাহবাগস্থ জাতীয় জাদুঘরের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় এবং সমাবেশ শেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর সংগঠনের দাবিনামা সম্বলিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন’র সভাপতি মোঃ সাইদুর রহমান লুৎফর। উদ্বোধনী ও শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা মোঃ ইকবাল আমিন। অধ্যক্ষ লায়ন মোঃ ছামিউল আলম রাসু’র সঞ্চালনায় সমাবেশ পরিচালিত হয়। সমাবেশে বিভিন্ন দাবি দাওয়া এবং সমস্যার কথা নিয়ে আগত জেলা উপজেলা নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।

সমাবেশে বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন’র সাধারণ সম্পাদক শেখ নাসির উদ্দিন বলেন, চলমান আমলা—রাজনৈতিক নেতাদের কারণে আমার সাধারণ ভূমিহীন কৃষক শ্রমিক মেহনতি জনতা দুর্নীতিবাজদের কাছে জিম্মি। আমরা সাধারণ মানুষ এ অবস্থা থেকে মুক্তি চাই। আমাদের প্রতিনিধিত্ব আমরাই দিতে চাই, কোন দুর্নীতিবাজদের নেতৃত্ব আমরা চাই না। নির্বাচনে ১% ভোটারের স্বাক্ষর বাতিল করে সৎ যোগ্য সাধারণ মানুষের প্রতিনিধি নির্বাচিত করার সুযোগ দেন।

ভূমিহীন আন্দোলনের দাবিগুলো হচ্ছে, * স্থানীয় প্রশাসনের (জেলা ও উপজেলার) সকল স্তরে সংখ্যাগরিষ্ঠ মেহনতী মানুষের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত কর এবং প্রজাতন্ত্রের জনগণ ও কর্মকর্তা—কর্মচারী উভয়ের ক্ষেত্রেই ফৌজদারী কার্যবিরি সমতা নিশ্চিত কর/করতে হবে। * বন বিভাগের ভূমিসহ খাস জমিতে বসবাসকারী ভূমিহীনদের মাঝে উক্ত জমি বন্দোবস্ত দিতে হবে এবং বনবিভাগের কর্মকর্তা—কর্মচারীদের নিপীড়ন হতে শ্রমজীবী ভূমিহীন জনগণকে রক্ষা কর/করতে হবে।

* সারাদেশে ভূমিহীন কৃষক—শ্রমিক ও মেহনতী জনগণের উপর দায়েরকৃত মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার কর/করতে হবে। * ভূমিদস্যু ও প্রভাবশালীদের স্বনামে—বেনামে দখলে থাকা বনবিভাগসহ সকল খাস জমি উদ্ধারের ব্যবস্থা গ্রহণ পূর্বে ভূমিহীনদের মধ্যে বন্টন ও বন্দোবস্ত দিতে হবে। * মুজিববর্ষে ‘আশ্রায়ন’ প্রকল্পে ঘর নির্মাণ ও বন্টন ক্ষেত্রে সংগঠিত দুনীর্তির তদন্তপূর্বক দুনীর্তিবাজদের শাস্তি বিধান করতে হবে।

* মেহনতী শ্রমজীবী স্বল্প আয়ের মানুষ অর্থাৎ অস্বচ্ছল ৩ কোটি ৫ লক্ষ ৫৩ হাজার খানার/ পরিবারের জন্য চাল, ডাল, তেলসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের রেশনিং ব্যবস্থা চালু কর/করতে হবে। * কৃষি জমিতে আবাসন প্রকল্প, ইটের ভাটা, শিল্প প্রতিষ্ঠান বা অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা যাবে না। খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে কৃষি ভূমি রক্ষা কর/করতে হবে। * উত্তরাঞ্চলে সাঁওতাল, ওঁরাও, মুন্ডা, মাহালি, মাল পাহাড়ি ইত্যাদি জাতিগোষ্ঠী ও বাঙালি ভূমিহীন জনগোষ্ঠীকে ভূমি হতে উচ্ছেদ প্রক্রিয়া বন্ধ কর। জমি গ্রাসের এই বৃটিশ/পাকিস্তানী নীতি পরিহার কর/করতে হবে।

* হাওর অঞ্চলে সদ্য বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক এবং চলমান নদ—নদীর ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত মেহনতী জনতাকে নগদে অর্থসহায়তা এবং সকল প্রকার ঋণ (কৃষি ব্যাংক ও অন্যান্য এনজিও) সুদ মওকুফ করতে হবে। * দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে কেবল সরকারী কর্মকর্তা—কর্মচারীরা মহার্ঘ ভাতার সুযোগ ভোগ করে থাকে। যেহেতু দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে সকল চাকুরীজীবী শ্রমিক কর্মচারী আক্রান্ত হয় সুতরাং শিল্পকারখানার ও গার্মেন্টস শ্রমিকদেরও মহার্ঘ ভাতার আওতায় আনতে হবে অথবা শ্রমিকদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের পূর্ণাঙ্গ রেশনিং ব্যবস্থা চালু কর/করতে হবে।

* প্রতিনিধি নির্বাচনের প্রার্থীতায় স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনে ১% ভোটারের প্রস্তাব/সমর্থন এর অগণতান্ত্রিক প্রথা বাতিল কর। সংখ্যাগরিষ্ঠ মেহনতী শ্রমজীবী জনতার পছন্দের প্রার্থীর প্রার্থিতা দিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ নিশ্চিত কর/করতে হবে।

সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলন’র কেন্দ্রীয় সহ—সভাপতি তৈয়ব হাবিলদার, মিরাজ মোল্লা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান পারভেজ বুলবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মতিন শেখ, প্রচার সম্পাদক মোঃ সোহেল রানা জেলা প্রতিনিধি মোঃ নান্নু মিয়া, পুন্দ্রেনাথ পিনু, আহাদ মিয়া, জামাল উদ্দিন, সুজাত মেম্বার, বার্নাবাস টুডু, হোসেন মোহাম্মদ ক্যাপ্টেন, মোছাঃ রাবেয়া, আজগর আলী, মহাসীন, মোঃ ইসহাক আলী হৃদয়, আবদুল আলিম, মোঃ মিনহাজ প্রমুখ।

পত্রিকা একাত্তর