patrika71 Logo
ঢাকাবুধবার , ২৮ জুলাই ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন গৃহশিক্ষক

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
জুলাই ২৮, ২০২১ ১১:০৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

নোয়াখালীর চাটখিলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় তাকে প্রাইভেট পড়াতো একই বাড়ির রুহুল আমিনের ছেলে ও গৃহশিক্ষক ফারাবি আহম্মেদ ফয়েজ। সপ্তম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় ফারাবি ওইছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় । এতে সে রাজি না হওয়ায় বিয়ে করবে বলে আশাস দেয়। গত দুই বছর যাবত বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে ফারাবি।

সবশেষ গত ৭জুলাই ফারাবি ওই ছাত্রীকে কৌশলে নিজের ফুফুদের রান্না ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক পুনঃরায় ধর্ষণ করে। এসময় ছাত্রীর গোংরানির শব্দ পেয়ে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় ফারাবি। উপজেলার পরকোর্ট ইউনিয়নে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৫) কে ধর্ষণের অভিযোগে গৃহশিক্ষক ফারাবি আহম্মেদ ফয়েজকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নির্যাতিতার পরিবারকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ফারাবির বাবা ও ভাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার সকালে নির্যাতিত ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে ফারাবিসহ তিনজনকে আসামি করে চাটখিল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাটি স্থানীয় ভাবে মিমাংশা করার চেষ্টা করলে ওই মেয়েকে বিয়ে করবে শর্তে ফারাবিকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায় তার বাবা রুহুল আমিন। কিন্তু পরবর্তীতে তাকে বিয়ে না করে উল্টো হুমকি দিতে থাকে ফারাবির পরিবারের লোকজন। বাধ্য হয়ে মঙ্গলবার রাতে নির্যাতিতার পরিবার থানায় এসে মোখিক অভিযোগ করেন।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ঘটনায় বুধবার সকালে ওইছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে তিনজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে। নির্যাতিত ছাত্রীর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হবে।

আবু সাঈদ শাকিল,
নোয়াখালী প্রতিনিধি।

ad