patrika71 Logo
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৮ নভেম্বর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বরগুনার দৈনিক প্রথম কথা’র সাংবাদিক কে আমতলীর কিশোর গ্যাংয়ের হামলা

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
নভেম্বর ১৮, ২০২১ ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ad

পৌরসভার সাকিব প্লাজা চত্বরে সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটের সময় কিশোর গ্যাংয়ের হামলার ঘটনাটি ঘটে।

পরিবার সূএে জানা যায়, গত ১৭-১১-২০২১ ইং তারিখ রোজ মঙ্গলবার বরগুনার আমতলী বাসা থেকে দৈনিক প্রথম কথা’র জেলা প্রতিনিধি ও পত্রিকা ৭১ এর স্টাফ রিপোর্টার সাংবাদিক মনির ছেলেকে নিয়ে প্রাইভেটের জন্য বাসা থেকে বের হয়। ছেলেকে প্রাইভেট পড়াতে দিয়ে থানার সামনে জলিলের দোকানে এস আই আমিরুল, এস আই সোওরাবসহ কয়েকজনের সাথে চা খেয়ে সাংবাদিক সজিবের সাথে সাকিব প্লাজা চত্বরে দিকে যায়। ওখানে সজিব প্যানেল মেয়র হাবিব মীরের সাথে কথা বলতে সামনে এগিয়ে গেলে সাংবাদিক মনির একটু পেছনে পরে ঠিক এই মূহুর্তে শামিম খানের ছেলে তোহা, মাহবুব, রাহাত মৃধা, সহ ২৫-৩০ জনের সংঘবদ্ধ দল সাংবাদিক মনিরের উপর রড, স্টাম, হকিস্টিক দিয়ে হামলা চালায়। উপায় না পেয়ে আব্দুল্লাহ মার্কেটের মূল ফটকের উত্তর পাশের দৌড়ে ইলেকট্রনিকস’র দোকানে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে গিয়ে ও দূর্ব্ওরা অমানবিক হামলা চালায়।

আরো পড়ুনঃ  ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

ঘটনাস্থলে আমতলী থানা পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়ে দেয়। জরুরী বিভাগের ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতালে ভর্তি দেন।

জরুরী বিভাগের ডাক্তার বলেন, আহতের মাথায় ব্যাকসাইটে, পিঠে, ডান কোমরে , বাম আংগুলে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়।

আহত সাংবাদিক মনির বলেন, আরও একবার আমার উপর কিশোর গ্যাংয়ের হামলা হয়। আমাকে ও আমার পরিবারকে নিউজ না করার জান্য হুমকি দেয়।এরা বারবার পুলিশ প্রশাসনের নাকের ডগায় অনেক ঘটনা ঘটিয়ে পার পেয়ে যায়।আমার হয়তো কপাল ভালো বেঁচে গিয়েছি কিন্তু ওরা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে কিন্তু সফল হয়নি পুলিশ ঘটনাস্হলে এসে আমাকে উদ্ধার করে।

আরো পড়ুনঃ  গৌরীপুরে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুর রহমান বলেন, আমি এস আই বারেক সহ ফোর্স পাঠিয়েছি। অভিযোগ পাইনি। পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করব।

মোঃ সোহাগ হাওলাদার: বার্তা কক্ষ থেকে।