patrika71 Logo
ঢাকাশনিবার , ৩০ অক্টোবর ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গলাচিপায় মানববন্ধনের প্রতিবাদে নৌকার প্রার্থীর সাংবাদিক সম্মেলন

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
অক্টোবর ৩০, ২০২১ ১:৫৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

পটুয়াখালীর গলাচিপায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, গলাচিপা উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি মোঃ মারুফ ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের সহ-সম্পাদক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মামুন আজাদের করা মানববন্ধনের প্রতিবাদে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আহসানুল হক তুহিন সংবাদ সম্মেলন করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। জেলা জামাতের সাধারণ সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমানের সাথে নৌকার মেয়র প্রার্থীর আঁতাতের বিষয়টি ভূয়া, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ বলে আহসানুল হক তুহিন দাবি জানান। এ সময় সাংবাদিকদের লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শুনান নৌকার মার্কার মেয়র প্রার্থী আহসানুল হক তুহিন।

আরো পড়ুনঃ  মোটর সাইকেলের জন্য পিতা মাতাকে ঘুমের বড়ি খাওয়ালো পুত্র

তিনি দাবি করেন, পৌরসভার দুই নং ওয়ার্ড শ্যমলীবাগে দলমত নির্বিশেষে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ব্যানারে একটি সভায় তাকে দাওয়াত করে এবং তিনি উপস্থিত হন। সেখানে ষড়যন্ত্রকারীদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য জামাত-শিবিরসহ ষড়যন্ত্রকারীদের দোসর থাকতেই পারে। এতো জনসমাগমের মধ্যে কে কোন দলের তা চিহ্নিত করা অসম্ভব।

আমার বাবা মরহুম ওহাব খলিফা পরপর তিনবার নৌকার ব্যানারে পৌরসভার সফল মেয়র হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয় ছিলেন এবং আমি ছাত্র জীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। বাবা মারা যাওয়ার পর নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়ে ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করে ৫ বছর সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করায় পূণরায় আমাকে জননেত্রী শেখ হাসিনা নৌকার মনোনয়ন দেন। তাই এতে ঈর্ষান্বিত হয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে এজেন্ডা হিসেবে তৈরি করে মিথ্যা ষড়যন্ত্র ও বানোয়াট ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকালে মানববন্ধন করে। তিনি এসব অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

আরো পড়ুনঃ  দিনাজপুরে মসজিদ থেকে তাবলিগের নাম করে জঙ্গি গ্রেফতার

পরে আওয়ামী লীগ অফিস প্রাঙ্গন থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়।

মিজানুর রহমান অপু: পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি।