patrika71 Logo
ঢাকাশুক্রবার , ১৩ আগস্ট ২০২১
  1. অনুষ্ঠান
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আন্দোলন
  7. আবহাওয়া
  8. ইভেন্ট
  9. ইসলাম
  10. কবিতা
  11. করোনাভাইরাস
  12. কৃষি
  13. খেলাধুলা
  14. চাকরী
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

“দৈনিক যুগের আলো” পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

পত্রিকা একাত্তর ডেস্ক
আগস্ট ১৩, ২০২১ ১০:৪২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

গত ১ আগস্ট/২০২১ “দৈনিক যুগের আলো” পত্রিকার ৩য় পাতায় প্রকাশিত কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ শীর্ষক অসত্য সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। সংবাদের বিষয়বস্তুতে ফুলবাড়ী উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জনাব মোঃ আব্দুল হাই এর বিরুদ্ধে দাপট দেখিয়ে মাদ্রাসা, স্কুল ও কলেজে অনিয়মের রাজত্ব করা, বিভিন্ন নিয়োগ ও দাপ্তরিক কাজে স্বার্থছাড়া না করা, আগাম লক্ষাধিক টাকা ছাড়া নিয়োগ পরীক্ষায় উপস্থিত না থাকা, নিয়োগ ও বিভিন্ন কাজে অনিয়ম করে টাকার পাহাড় গড়া, স্ত্রী সন্তানদের নামে বেনামে ব্যাংকে টাকা জমা করা, সেই টাকায় রাতারাতি রংপুর শহরে ফ্লাট বাড়ি করা, কর্মস্থলের বাহিরে থেকে নিয়মিত অফিস না করা সহ অনেক কল্প-কহিনী ছাপানো হয়েছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

এছাড়া উপজেলার তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তিনজন শিক্ষকের নিবন্ধন সনদ যাচাইয়ের বিষয়ে তাকে জড়িয়ে যে আষাঢ়ের গল্প সাজানো হয়েছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক।

প্রকৃতপক্ষে অভিযোগকারী আব্দুল খালেক টাউট-বাটপার এবং ছিটমহল আন্দোলন বিরোধী এক কুচক্রী ব্যক্তি বটে। তিনি বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার সরকারিকরণ ঘোষিত শেখ ফজিলাতুন্নেছা দাখিল মাদ্রাসার জমি গায়ের জোরে চাষাবাদ করে ভোগ দখল করে আসছেন। তিনি উক্ত মাদ্রাসার কমিটি না হওয়া সত্ত্বেও অবৈধভাবে নিজেকে সভাপতি দাবি করে লক্ষ লক্ষ টাকার নিয়োগ-বাণিজ্য সহ মাদ্রাসায় বিশৃংখলা সৃষ্টি করে চলছেন। এসব বিষয়ে ভুক্তভোগীরা জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দপ্তর সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করলে উর্দ্ধতন কর্মকর্তার নির্দেশে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জনাব মোঃ আব্দুল হাই তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নিলে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসার ভয় ধুরদ্ধর আব্দুল খালেক উল্টো বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেন এবং সাংবাদিককে মিথ্যা তথ্য দিয়ে কাল্পনিক সংবাদ প্রকাশ করে নিজে তদন্ত অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকেন। যাহা ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা মাত্র।

একজন সৎ নিষ্ঠাবান ও দায়িত্ব পরায়ণ শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এমন অসত্য, মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হয় ফুলবাড়ী উপজেলার শিক্ষক সমাজ সংক্ষুব্ধ।

তাই সকল শিক্ষক সমাজের পক্ষে আমরা এই ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মোঃ ইসমাইল হোসেন, সভাপতি ও মোঃ শামসুল হক সরকার, সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা মাদ্রাসা সুপার সমিতি, ফুলবাড়ী, কুড়িগ্রাম।

মোঃ জালাল উদ্দিন, সভাপতি ও মোঃ মোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি, ফুলবাড়ী উপজেলা শাখা, ফুলবাড়ী, কুড়িগ্রাম।

মোঃ নাসিরুল ইসলাম: কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি।

ad