patrika71
ঢাকামঙ্গলবার - ১০ জানুয়ারি ২০২৩
  1. অনুষ্ঠান
  2. অনুসন্ধানী
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া
  7. ইসলাম
  8. কবিতা
  9. কৃষি
  10. ক্যাম্পাস
  11. খেলাধুলা
  12. জবস
  13. জাতীয়
  14. ট্যুরিজম
  15. প্রজন্ম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পটুয়াখালী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে বিজয় মিছিল সাংস্কৃতিক পরিষদ উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিনিধি
জানুয়ারি ১০, ২০২৩ ১১:০৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০ টায় পটুয়াখালী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের বিজয় মিছিল সাংস্কৃতিক পরিষদের উদ্বোধন করা হয়।

শুরুতে জাতীয় সংগীত গেয়ে প্রধান অতিথি সংগঠন এর উদ্বোধন করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ জনাব মো: মোস্তাফিজুর রহমান খান।

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অত্র প্রতিষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পরিষদ এর আহ্বায়ক চিফ ইনস্ট্রাক্টর জনাব জহিরুল ইসলাম, সদস্য সচিব মোঃ মাহ্ফুজুর রহমান, অত্র পরিষদের ইনস্ট্রাক্টর মোঃ মহিউদ্দিন (সদস্য), ইনস্ট্রাক্টর জিসানুর রহমান (সদস্য),ইনস্ট্রাক্টর সঞ্জয় চন্দ্র সরকার(সদস্য), ইনস্ট্রাক্টর ফারজানা আক্তার ইতি (সদস্য), ইনস্ট্রাক্টর সারা বিনতে তসলিম (সদস্য) ও জুনিয়র ইনস্ট্রাক্টর মোঃ আবু তালেব (সদস্য) সহ অত্র প্রতিষ্ঠানের আরও শিক্ষক এবং সকল ডিপার্টমেন্ট এর ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যক্ষ জনাব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান খান বলেন, পৃথিবীর প্রত্যেকটি দেশের কিছু নিজস্ব সংস্কৃতি থাকে। তমনি আমাদের বাংলাদেশের ও আছে। আশা করি আমরা সবাই সে সম্পর্কে জানি । বিশ্ব বিখ্যাত মনিষীগণ এমন কিছু উক্তি বা বাণী করেছেন যা আমাদের একবার হলেও পড়ে দেখা দরকার।

তিনি আরও বলেন, এই পরিষদের মধ্য দিয়ে পটুয়াখালী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নিজস্ব একটি ফান্ড তৈরি হবে এবং এই সাংস্কৃতিক পরিষদ থেকে সকল ধরনের দিবস নিজ কলেজে বসে পালিত হবে। আমি এই সাংস্কৃতিক পরিষদ এর সাফল্য কামনা করছি।

সদস্য সচিব মোঃ মাহ্ফুজুর রহমান বলেন,এ সংগঠন শুধু নাটক,নাচ,গানে,আটকে থাকবে না। ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে জাতীয় দিবস উদযাপনে এ সংগঠনে ভূমিকা থাকবে অপরিসীম।আমরা এই সাংস্কৃতিক পরিষদকে সাফল্যের সর্বচ্চ চূড়ায় নিয়ে যাব।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য আরো বলেন,মানুষ ব্যতীত অন্য কোনো প্রাণীর সংস্কৃতি নেই, সভ্যতাও নেই। বস্তুত ভাষা মানুষের সংস্কৃতি ও সভ্যতার মূলভিত্তি। জীবনধারণ, আত্মরক্ষা ও আত্মবিকাশের প্রয়োজনে মানুষ সংঘবদ্ধ বা সমাজবদ্ধ জীবনযাপনে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে। এ সমাজবদ্ধ জীবনযাপন সম্ভব ও তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে উঠেছে ভাষার কারণে।

উপস্থিত সদস্যদের মধ্যে ইনস্ট্রাক্টর সারা বিনতে তসলিম বলেন, এটা সব ধরণের সাম্প্রদায়িকতার ঊর্ধ্বে একটা সংগঠন।

নতুন কেতন উড়িয়ে জাগে মানুষ, জাগে প্রাণ, জাগে দেশ ও মানবমণ্ডলী। পুরনো জীর্ণতা ছেড়ে আগামী পথে চলার দিশা পায় বাঙালি তার নিজস্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের আলোকমালায়।

পরবর্তীতে আলোচনা শেষে সাংস্কৃতিক পরিষদ উদ্বোধন অনুষ্ঠান উপলক্ষে নৃত্য ও নজরুল সংগীত দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

পত্রিকা একাত্তর/ এস.এম.সোহান